আব্বাস দম্পতির ৮ সপ্তাহের জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩০ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় দায়ের করা তিন মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

জামিন সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করে আদেশ দেন। আদালতে আজ জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন ও একেএম এহসানুর রহমান। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির।

এহসানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ, রাস্তা অবরোধ, পুলিশকে মারধর ও সরকারিকাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে রাজধানীর নয়াপল্টনে ১৪ নভেম্বর ঘটনায় করা তিন মামলায় স্বামী-স্ত্রী (মির্জা আব্বাস ও আফরোজা আব্বাস) দুইজনকেই ৮ সপ্তাহ করে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এর আগে আগাম জামিন নেয়ার জন্য রোববার সকালে তারা সুপ্রিম কোর্টে আসেন। সকালেই সস্ত্রীক সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতির কক্ষে অবস্থান করছিলেন তারা।

গত বুধবার বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ওপর হামলা, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগের তিনটি মামলা করা হয়।

পুলিশের করা তিনটি মামলার প্রতিটিতে হুকুমের আসামি করা হয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সভাপতি নবীউল্লাহ নবী, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান এবং বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য কফিল উদ্দিনকে।

পল্টন থানায় বুধবার রাতে দায়ের করা হয় বিস্ফোরক আইনের মামলাটি। ওই মামলায় ১৯২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ১৬ জনকে। বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা ২২ নম্বর মামলায় আসামি করা হয়েছে ১৫৯ জনকে। এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ২৩ জনকে।

পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে দণ্ডবিধিতে করা ২৩ নম্বর মামলায় আসামির তালিকায় ১৩৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। গ্রেফতার দেখানো হয়েছে ২৬ জনকে।

গত ১৪ নভেম্বর নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পুলিশের গুলি, কাঁদানে গ্যাসের শেল ও লাঠিপেটায় বেশ কয়েকজন আহত হন। নেতাকর্মীদের পাল্টা হামলায় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

এফএইচ/এসএইচএস/বিএ/আরআইপি/এমএস/জেআইএম