পরীক্ষার ১৫ বছর পর বিসিএসে উত্তীর্ণের নিয়োগে রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪৭ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৮

২৪তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরও চাকরিতে সুযোগ না দেয়া কেন বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মো. আশরাফুল ইসলামকে কেন নিয়োগ দেয়া হবে না, রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, পিএসসি চেয়ারম্যান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ক্যাডার (পিএসসি) ও পিএসসির পরিচালককে (পরীক্ষক) রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান ও তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট নাজমুল হুদা।

রিট আবেদনে বলা হয়, ২৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরও মৌখিক পরীক্ষার সময় পিতার মুক্তিযোদ্ধা সনদ প্রদান না করায় পরীক্ষা গ্রহণ করেনি পিএসসি। এরপর পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে গড়িমসি করে পিএসসি কতৃপক্ষ। এর মধ্যে কেটে যায় প্রায় ছয় বছর।

২০১১ সালে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়। রিটের রায়ে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। ওই রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করে পিএসসি কর্তৃপক্ষ।

২০১৪ সালে রিভিউ খারিজ করেন আদালত। এরপর ২০১৭ সালের ২ জানুয়ারি মো. আশরাফুল ইসলামের মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। কিন্তু এখন পযর্ন্ত পিএসসি তার ফলাফল প্রকাশ করেনি।

ফলাফল ঘোষণা না করার বৈধতা এবং নিয়োগ প্রদানে পিএসসির অনিচ্ছা ও ব্যর্থতাকে চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়। ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত প্রায় দেড় দশক পর আজ এ আদেশ দেন।

এফএইচ/এমএআর/আরআইপি