কারাবন্দিদের কক্ষ ও শূন্য পদে চিকিৎসক নিয়োগে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৪ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

দেশের ৬৮টি কারাগারে ১২০ জন চিকিৎসকের শূন্য পদে নিয়োগের ব্যবস্থাগ্রহণে নির্দেশনা চেয়ে একটি রিট আবেদন করা হয়েছে। একই সঙ্গে কারাগারে বন্দিদের জন্য পর্যাপ্ত কারাকক্ষের ব্যবস্থা করার আর্জি জানানো হয়েছে।

বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে জনস্বার্থে সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. জে আর খান রবিন এ রিট আবেদন করেন। রিটের বিষয়টি জাগো নিউজকে তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

রিটে আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সচিব, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় সচিব, জনপ্রসাশন মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ও ইন্সপেক্টর জেনারেল অব প্রিজন কারাকর্তৃপক্ষকে বিবাদী করা হয়েছে।

আবেদনে কারাগারে বন্দিদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাক চিকিৎসক নিয়োগ না দেয়ার ব্যর্থতা ও বন্দিদের থাকার জন্য পর্যাপ্ত স্থান বরাদ্দ না দেয়ার ব্যর্থতা কেন বে-আইনি ঘোষণা করা হবে না -এ মর্মে রুল চাওয়া হয়েছে।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি সরকারের সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে লিগ্যাল (আইনি) নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশে চিকিৎসক নিয়োগ ও প্রয়োজনীয় বাসস্থানের সুব্যবস্থা করতে ৭ দিন সময় দেয়া হয়েছিল। তবে নিয়ম অনুযায়ী ওই নোটিশ পাওয়ার পর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় এ রিট করা হয়।

আইনজীবী জে আর খান রবিন বলেন, দেশের বিভিন্ন জেলে ১২০ জন কারা চিকিৎসক প্রয়োজন। তাই জনস্বার্থে এ রিট আবেদন করেছি।

তিনি জানান, কিছু দৈনিক পত্রিকার প্রতিবেদন ও কারাকর্তৃপক্ষ থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে দেখা গেছে, দেশের প্রায় ৬৮টি কারগারে মোট ১২৯ চিকিৎসক কর্মরত থাকার কথা। কিন্তু সারাদেশে মাত্র ৯ জন চিকিৎসক প্রায় ৮৯ হাজার কারাবন্দিকে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। এমনিতেই নির্দিষ্ট পরিমাণের তুলনায় দেশের কারাগারগুলোতে বন্দিদের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে খুব বেশি। সেই সঙ্গে নির্দিষ্ট সংখ্যক চিকিৎসক না থাকায় কারাবন্দিদের চিকিৎসার স্বাভাবিক প্রক্রিয়া ব্যাহত হচ্ছে।

এফএইচ/আরএস/এমএস