স্কুল-মাদরাসার আইসিটি শিক্ষক পদ সংরক্ষণে হাইকোর্টের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩০ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৯

সারাদেশে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) সুপারিশপ্রাপ্ত ১৩৮ জনের জন্য আইসিটি সহকারী শিক্ষক পদ সংরক্ষণ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আদেশের কপি পাওয়ার পর ৬ মাসের জন্য এই ১৩৮টি পদ সংরক্ষণ করতে বলা হয়েছে।

হাইকোর্টের এই আদেশের ফলে এসব পদে অন্য কোনো শিক্ষক নিয়োগের সুযোগ থাকল না। তবে, এই পদগুলো ছাড়া বাকি পদে নিয়োগে কোনো বাধা নেই বলেও জানান রিটকারী আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া।

পৃথক দুটি রিট শুনানি নিয়ে আজ বুধবার (১৭ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া। তাকে সহযোগিতা করেন আইনজীবী মো. মনিরুল ইসলাম রাহুল ও মো. সোহরাওয়ার্দী সাদ্দাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

সারাদেশের বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৩৮ জন শিক্ষকের তাদের এনটিআরসিএ কর্তৃক প্রাপ্ত নিয়োগের সুপারিশের আলোকে যোগদান পত্র গ্রহণ করার জন্য নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট করেন আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া।

একইদিন দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মো. ওমর ফারুক মোল্লা, ওসমান গণি, মো. বদর উদ্দিন, মো. আসাদুল্লাহ, মো. এনামুল হক, মো. সুজন মিয়া, মো. তবারক হোসেন, উৎপল দত্ত, মো. লুৎফর রহমান, মোছা. রুপালী খাতুনসহ ১৩৮ জন আরেকটি রিট দায়ের করেন।

আজ রিট দুটির শুনানি শেষে আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, ‘ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত রুল জারির পাশাপাশি ১৩৮টি পদ ৬ মাসের জন্য সংরক্ষণের নির্দেশনা প্রদান করেন। এই আদেশের ফলে ১৩৮টি পদ সংরক্ষিত থাকবে। ওই পদগুলোতে আর কাউকে নিয়োগ প্রদানের সুযোগ থাকল না। তবে, এই ১৩৮টি পদ ব্যতীত সারাদেশে আইসিটি সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিতে আইনগত কোনো বাধা নেই।’

এফএইচ/এসআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :