এফআর টাওয়ারের জমির মালিকসহ তিনজনের মুক্তিতে বাধা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৭ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতির মামলায় জমির মালিক সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান ইমাম ফারুক, রাজউকের সাবেক পরিদর্শক আওরঙ্গজেব সিদ্দিকী ও সাবেক উপ-পরিচালক মো. শওকত হোসেনের জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

একইসঙ্গে, তাদের আত্মসমর্পণ করার জন্য হাইকোর্টের দেয়া আদেশও স্থগিত করেছেন আদালত। এখন তাদের মুক্তিতে কোনো বাঁধা নেই বলে জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

তাদের পক্ষে করা আবেদন শুনানি নিয়ে সোমবার (১৮ নভেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে চার সদস্যের বিচারপতির আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

মো. খুরশীদ আলম খান জানান, এর আগে হাইকোর্ট তাদের জামিন দিয়ে বিচারিক আদালতের আদেশ স্থগিত করেছিলেন। আজ ওই স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে তাদের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগ এই তিনজনকে জামিন দিয়েছেন।

এর আগে এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের পর করা মমালায় এই তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছিলেন বিচারিক আদালত। পরে ফারুক, নান্নু ও শওকত গত আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে ভিন্ন ভিন্ন তারিখে ঢাকার জজ আদালত থেকে জামিন নেন। কিন্তু দুদকের আবেদনে হাইকোর্ট তাদের জামিন বাতিল করে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। হাইকোর্টের ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার পর আজ এই আদেশ দিলেন আদালত।

নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে অবৈধভাবে এফআর টাওয়ার ১৬ থেকে ২৩ তলা ভবন নির্মাণের অভিযোগে টাওয়ারের মালিক, রাজউকের সাবেক দুই চেয়ারম্যানসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে গত ২৬ জুন পৃথক দুটি মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের উপ-পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক বাদী হয়ে ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলাটি করেন।

এ মামলায় ভুয়া ছাড়পত্রের মাধ্যমে এফআর টাওয়ারের ১৯ থেকে ২৩ তলা নির্মাণ, বন্ধক প্রদান ও বিক্রি করার অভিযোগে দণ্ডবিধির সাতটি ধারা এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন ১৯৪৭-এর ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়। গত ২৮ মার্চ দুপুরে বনানীর এফআর টাওয়ারে আগুন লাগে। এতে ২৭ জন মারা যান।

এফএইচ/জেডএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]