২৮ লাখ ইয়াবাসহ গ্রেফতার তিনজনের ১৫ বছরের সাজা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৪:২৪ পিএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর মোহনা থেকে ২৮ লাখ পিস ইয়াবাসহ ২০১৬ সালে তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব-৭। মঙ্গলবার এক রায়ে তাদের প্রত্যেককে ১৫ বছর করে সাজা দিয়েছেন আদালত।

দুপুর ১২টার দিকে মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত এ রায় দেন। ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সাজা এটি। একই রায়ে আদালত আসামিদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে ৬ মাস করে জেল দিয়েছেন।

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দীন চৌধুরী জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সাতকানিয়া উপজেলার ঢেমশা এলাকার ফকির মোহাম্মদের ছেলে আলী আহমদ (৫৬), কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা এলাকার আব্দুস শুক্করের ছেলে মো. হামিদুল্লাহ (৩২) ও রাঙামাটি জেলার কাউখালী এলাকার আজিজুল হকের ছেলে মো. মহিউদ্দীন (৩৯)।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৭ জানুয়ারি কর্ণফুলী নদীর মোহনা থেকে ২৭ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ আলী আহমদ ও হামিদুল্লাহকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৭। পরে আসামিদের দেয়া তথ্যে আরও ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মহিউদ্দীনকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাব-৭ কর্মকর্তা মো. মহসিন কবির বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে পতেঙ্গা থানায় মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ২৩ মে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেয়। ৬ সেপ্টেম্বর আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষে নয়জন এ মামলায় সাক্ষ্য দেন।

গ্রেফতারের পর থেকে আসামিরা কারাগারে ছিলেন। আজ রায় ঘোষণার সময়ও আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাদের আবারও কারাগারে পাঠানো হয়।

আবু আজাদ/জেএইচ/জেআইএম