গ্যারেজের মালিকের মেয়েকে অপহরণ : দুই রিকশাচালক কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২১ পিএম, ২২ মে ২০২০
অপহৃত শিশু সামিয়া। তাকে উদ্ধার করে পুলিশ

রিকশা গ্যারেজের মালিকের মেয়ে শিশু সামিয়াকে (৭) অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করার ঘটনায় গ্রেফতার দুই রিকশাচালকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। তারা হলেন- জাহিদ (২০) ও আ. জলিল (১৯)।

শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম কনক বড়ুয়া তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এদিন তাদের দুজনকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে বাড্ডা থানা পুলিশ। অপহরণের ঘটনায় বাড্ডা থানায় করা মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন পুলিশ। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় একটি গ্যারেজের রিকশা চালাতেন জাহিদ ও জলিল। সে সুবাদে রিকশা গ্যারেজ মালিকের সঙ্গে পারিবারিক সম্পর্ক তৈরি হয় তাদের। এই বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে বুধবার বেলা ৩টার দিকে গ্যারেজ মালিকের মেয়ে শিশু সামিয়াকে অপহরণ করেন তারা। এরপর তারা গ্যারেজের মালিকের কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। অন্যথায় তার মেয়েকে মেরে ফেলার হুমকি দেন।

বিষয়টি বাড্ডা থানা পুলিশকে জানান গ্যারেজের মালিক। এরপর বৃহস্পতিবার বাড্ডা থানা পুলিশের অভিযানে অপহরণকারী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতারসহ অপহৃত শিশু সামিয়াকে (৭) উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেফতারের সময় তাদের হেফাজত থেকে অপহরণ কাজে ব্যবহৃত একটি ধারালো চাকু, রশি ও স্কচটেপ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বাড্ডা থানায় তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়।

জেএ/জেডএ/পিআর