বন্ধুকে কেটে তিন টুকরা, মূলহোতা রূপম দুই দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৬ পিএম, ২২ জুন ২০২০

রাজধানীর দক্ষিণখানে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হেলাল উদ্দিনকে (২৬) হত্যা করে খণ্ডিত অংশ তিন জায়গায় রাখার আলোচিত ঘটনার মূলহোতা চার্লস রূপম সরকারকে দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ শুনানি শেষে তার এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সোমবার (২২ জুন) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। হত্যার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক আবু সাঈদ। শুনানি শেষে বিচারক দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

দক্ষিণখান থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে রাজধানীর গাবতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

১৫ জুন হেলাল নামে ওই তরুণ ব্যবসায়ীর মরদেহের দুই অংশ দক্ষিণখান ও বিমানবন্দর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। পরদিন দক্ষিণখানের একটি খালি প্লট থেকে উদ্ধার করা হয় হেলালের মাথা। ঘটনার পরদিন হেলালের বড় ভাই মো. হোজায়াফা বাদী হয়ে দক্ষিণখান থানায় অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যে নিহত হেলালের বন্ধু চার্লস রূপম সরকার ও তার স্ত্রী শাহীনা আক্তার ওরফে মনি সরকার (২৪) ও রূপমের শাশুড়ি রাশিদা আক্তারকে (৪৮) গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা আদালতে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রাজধানীর উত্তরা ও আব্দুল্লাহপুর থেকে গ্রেফতারের পর তাদের আদালতে সোপর্দ করা হলে হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন তারা। স্বীকারোক্তিতে উঠে আসে, নগদ টাকা হাতিয়ে নেয়াই ছিল হত্যার নেপথ্যের কারণ।

জেএ/এমএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]