স্থগিতই থাকছে চট্টগ্রামের বরখাস্ত জেলার সোহেল রানার জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫০ পিএম, ৩০ জুন ২০২০

চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে নগদ ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার ‘অবৈধ’ টাকা ও সিডিলসহ আটক চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের বরখাস্ত জেলার (কারা তত্ত্বাবধায়ক) সোহেল রানা বিশ্বাসকে অর্থপাচার আইনের মামলায় হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিতের মেয়াদ আরও ১৬ সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের ভার্চুয়াল চেম্বারজজ আদালত এই আদেশ দেন।

এর আগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৩ জুন তার জামিনের ওপর ৩০ জুন পর্যন্ত স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগের চেম্বারজজ আদালত। আজ আবার শুনানিতে এই আদেশ দেন আদালত।

দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। সোহেল রানার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন, আইনজীবী নাহিদ সুলতানা যুথী ও সাকিলা রওশন।

গত ১৬ জুন পাসপোর্ট জমা দেয়ার শর্তে পুলিশ প্রতিবেদন না হওয়া পর্যন্ত বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের বেঞ্চ সোহেল রানাকে জামিন দিয়েছিলেন। এ আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করে দুদক।

২০১৮ সালের ২৬ অক্টোবর দুপুর ১টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস থেকে নগদ ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার ‘অবৈধ’ টাকা ও সিডিলসহ সোহেল রানা বিশ্বাসকে আটক করে রেলওয়ে পুলিশ।

এছাড়া তার কাছ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে নেয়া ১ কোটি ৩০ লাখ টাকার চেক ও তার স্ত্রীর নামে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকার এফডিআর সংক্রান্ত নথি উদ্ধার করা হয়।

পরে সোহেল রানা বিশ্বাসের বিরুদ্ধে ভৈরব রেলওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আশ্রাফ উদ্দিন ভূঁইয়া বাদী হয়ে মাদক ও মানি লন্ডারিং আইনে পৃথক দু’টি মামলা করেন। এ ঘটনার পরে কারা কর্তৃপক্ষ তাকে বরখাস্ত করেন।

এফএইচ/এমএফ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]