ভার্চুয়াল আপিল বিভাগের কার্যক্রম ৫ দিন চালানোর আশাবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৯ পিএম, ১৩ জুলাই ২০২০

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে দেশের বিচার বিভাগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ভার্চুয়াল বেঞ্চে বসে শুনানি করেছেন।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে সোমবার (১৩ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় আপিল বিভাগের সাত সদস্যর পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে বিচার কার্যক্রম শুরু হয়।

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ চার মাস পর আপিল বিভাগের বিচার কার্যক্রমের শুরুতেই প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, ভার্চুয়াল বিচার ব্যবস্থাকে এগিয়ে নিতে হবে।

পাশাপাশি ভার্চুয়াল কার্যক্রম সফল হলে সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবসেই আপিল বিভাগ বসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। একইসঙ্গে ভার্চুয়াল কার্যক্রমকে নিয়মিত আদালতের অংশ বলে মত দেন বেঞ্চের অন্য বিচারপতিরা।

jagonews24

গত ১০ মে থেকে ভার্চুয়ালি হাইকোর্ট বেঞ্চ ও চেম্বার আদালতে বিচারকাজ চলমান রয়েছে। তবে ভার্চুয়াল আপিল বিভাগ এটাই প্রথম।

করোনা মহামারিকালে ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সপ্তাহে দুই দিন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে বলে গত রোববার (১২ জুলাই) বিজ্ঞপ্তি জারি করেন আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. বদরুল আলম ভূঞা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধকল্পে এবং শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরকে ‘আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ ২০২০’ এবং অত্র কোর্ট কর্তৃক প্রণীত প্র্যাকটিস ডাইরেকশন অনুসরণ করতে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে শুধু ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে বিচারকার্য পরিচালিত হবে মর্মে অনুমোদন দিয়েছেন। আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল কোর্টে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত প্রত্যেক সপ্তাহের সোমবার ও বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সোয়া ১টা পর্যন্ত শুনানি গ্রহণ করা হবে।

এফএইচ/এইচএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]