উচ্চ আদালতে মামলা পরিচালনায় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২০

দেশের উচ্চ আদালতে আগামী বুধবার (১২ আগস্ট) থেকে শারীরিক উপস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে বিচার কার্যক্রম শুরু হওয়ায় মামলা ও দরখাস্ত ফাইলিং এবং নকল (কপি) সরবরাহের ক্ষেত্রে ৫ দফা নির্দেশনা দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

সোমবার (১০ আগস্ট) সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ১২ আগস্ট থেকে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে মামলা ও দরখাস্ত ফাইলিং এবং নকল সরবরাহের ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত নির্দেশনাসমূহ অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা হলো :

১. করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) উদ্ভুত পরিস্থিতিতে পূর্বের প্রচলিত নিয়ম অনুসারে সকল প্রকারের মামলা ও দরখাস্ত ফাইলিং করা যাবে। ফাইলিং পরবর্তী এফিডেভিটকৃত মামলার নথি সংশ্লিষ্ট আদালতে দাখিলের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) উদ্ভুত পরিস্থিতির পূর্বের পদ্ধতি প্রযোজ্য হবে।

২. ভার্চুয়াল কোর্টে মামলা ও দরখাস্ত শুনানির ক্ষেত্রে ভার্চুয়াল শুনানির লিংক প্রেরণের জন্য ফাইলিংয়ের সময় সকল মামলা ও দরখাস্তের উপর নিয়োজিত আইনজীবীর ই-মেইল অ্যাড্রেস উল্লেখ করতে হবে।

৩. ফাইলিং শাখায় ইতোমধ্যে দাখিলকৃত মামলা ও দরখাস্তসমূহের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) উদ্ভুত পরিস্থিতির পূর্বের প্রচলিত পদ্ধতি প্রযোজ্য হবে।

৪. শরীরিক উপস্থিতি ও ভার্চুয়াল উভয় পদ্ধতিতে মামলা ও দরখাস্ত শুনানির জন্য করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) উদ্ভুত পরিস্থিতির পূর্বের প্রচলিত নিয়ম অনুসারে দৈনিক কার্যতালিকা প্রস্তুত ও প্রচারিত হবে।

৫. নকল শাখার স্বাভাবিক কার্যক্রম চলমান খাকায় শারীরিক উপস্থিতি ও ভার্চুয়াল উভয় পদ্ধতিতে পরিচালিত সকল বেঞ্চ খেকে প্রদত্ত আদেশ এবং রায়ের নকল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) উদ্ভুত পরিস্থিতির পূর্বের প্রচলিত নিয়মে সরবরাহ করা হবে।

এর আগে শারীরিক উপস্থিতির মাধ্যমে ১৮টি বেঞ্চে বিচারকাজ শুরু করার বিজ্ঞপ্তি জারি করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। তবে, করোনা বিবেচনায় শারীরিক উপস্থিতির পাশাপাশি ভার্চুয়াল পদ্ধতিতেও হাইকোর্টের ৩৫টি বেঞ্চে বিচারকার্যক্রম চলবে বলেও ঘোষণা করা হয়েছে।

এ নিয়ে মোট ৫৩টি আদালতে বিচার চলবে হাইকোর্টে।

এফএইচ/এসএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]