ব্লগার ওয়াশিকুর হত্যা: পাঁচ আসামির মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৫৫ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যা মামলার আসামি আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের পাঁচ সদস্যর মৃত্যুদণ্ড কারাদণ্ডের দাবি করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল ইসলামের আদালতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

যুক্তি উপস্থাপনে পাঁচ আসামির সর্বোচ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড কারাদণ্ডের আশা করেন আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর সালাউদ্দিন হাওলাদার।
রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে আসামি আব্দুর রশিদ মোল্লা ও নজরুল ইসলাম যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন।

এদিন তাদের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন শেষ না হওয়ায় ২৪ সেপ্টেম্বর অবশিষ্ট যুক্তি উপস্থাপনের জন্য দিন ধার্য করেন। মামলার ৪০ সাক্ষীর মধ্যে ২৪ সাক্ষ্য দিয়েছেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৩০ মার্চ সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বেগুনবাড়িতে দীপিকার ঢাল এলাকায় বাসা থেকে বের হয়ে অফিসে যাওয়ার পথে খুন হন ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু। এর পরপরই জনতার সহায়তায় পুলিশ জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ইসলাম নামে দুই মাদরাসাছাত্রকে আটক করে।

ফেসবুক ও ব্লগসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম নিয়ে লেখালেখি করায় বাবুকে হত্যা করা হয়েছে বলে জিকরুল্লাহ ও আরিফুল স্বীকার করেছেন। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত তিনটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

বাবু হত্যার ঘটনায় আটক জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ইসলামসহ চারজনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে ওই রাতে তেজগাঁও থানায় হত্যা মামলা করেন তার ভগ্নিপতি মনির হোসেন। পরে আটক দু’জনকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর ডিবি পুলিশ আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের ৫ সদস্য জিকরুল্লাহ, আরিফুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, হাসিব আব্দুল্লাহ (পলাতক) ও আবু তাহের জুনায়েদের (পলাতক) বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৬ সালের ২০ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ এসএম জিয়াউর রহমান।

জেএ/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]