চাঁদাবাজির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান সুজন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

চাঁদাবাজির অভিযোগে করা মামলায় সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) তাকে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাভার থানার উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

অপরদিকে তার আইনজীবী মাসুদ খান জামিন চেয়ে আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহজাদী তাহমিদা তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। একই সঙ্গে আদালত জামিন বিষয় শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকা থেকে সাইদুর রহমান সুজনকে গ্রেফতার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকায় বাড়ির কাজ করতে গেলে এক ব্যক্তির কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন তিনি। এ সময় বাড়ির মালিক নগদ এক লাখ টাকা দিলেও বাকি টাকার জন্য চাপ দিতে থাকেন চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। পরে ভুক্তভোগী ওই বাড়ির মালিক ঘটনাটি জানিয়ে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা করেন।

সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিকেলে আশরাফুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে একটি মামলা করেন। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, বিরুলিয়ায় তার পাঁচতলা বাড়ির বাউন্ডারি ওয়াল সম্পন্ন করে তৃতীয় তলা পর্যন্ত নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। মঙ্গলবার ৪র্থ তলার কাজ শুরু করলে ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এ সময় বাড়ির মালিক তাকে এক লাখ টাকা দিলেও বাকি টাকার জন্য চাপ সৃষ্টির পাশাপাশি কাজ বন্ধ করে দেন।

পরে থানায় এসে মামলা করেন ভুক্তভোগী আশরাফুল ইসলাম। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জেএ/এমএসএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]