ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচন হাইকোর্টে স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫০ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০

ফরিদপুর সদরের পৌরসভার নির্বাচনের কার্যক্রম স্থগিত করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এর ফলে নির্বাচনী কার্যক্রম আপাতত বন্ধ থাকবে। আগামী ১০ ডিসেম্বর এই নির্বাচন অনুষ্ঠানের তারিখ ছিল।

পৌরসভার নির্বাচন স্থগিতের পাশাপাশি ফরিদপুর পৌরসভাকে সিটি করপোরেশন হিসেবে উন্নীতকরণ প্রক্রিয়াধীন থাকা অবস্থায় গত ৩ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণাকে কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টদের এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এক রিট আবেদনের শুনানিতে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মোসাদ্দেক বিল্লাহ। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এএম আমিন উদ্দিন ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ রাসেল চৌধুরী।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত চেয়ে পৌরসভার বর্ধিত এলাকার ভোটার মো. আতিয়ার রহমান রিট দায়ের করেন। ওই রিটের আজ শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন। আইনজীবীরা জানান, ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচন ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দস জানান, একটি পৌরসভাকে সিটি করপোরেশন করতে যা যা করা দরকার প্রশাসন তার সবই করেছে। এমনকি গত বছর ২১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনবিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার) ১১৬তম সভার প্রধান আলোচ্যসূচি ছিল ফরিদপুর সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠা।

ওই সভায় বিদ্যমান ফরিদপুর পৌরসভা এবং সম্প্রসারিত এলাকা নিয়ে ফরিদপুর সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। তা সত্ত্বেও নির্বাচন কমিশন ফরিদপুর পৌরসভা নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করে। নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণাকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত আজ ফরিদপুর পৌরসভা নির্বাচন ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছেন।

গতকাল (২৪ নভেম্বর) সকাল ১০টায় কবি জসিম উদ্দীন হলে ফরিদপুর পৌরসভার প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। এ সময় মেয়র প্রার্থী ছাড়াও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ও কাউন্সিলররা তাদের সমর্থকদের নিয়ে উপস্থিত হন।

আগামী ১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ চারজন প্রার্থী, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৫২ জন ও কাউন্সিলর পদে ১৯৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে দেশের সর্ববৃহৎ এলাকা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৪৮ হাজার ৩১৩ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭১ হাজার ৭৮৬ এবং নারী ভোটার ৭৬ হাজার ৫৭১ জন।

এফএইচ/জেএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]