নারী-শিশু নির্যাতন মামলায় হাইকোর্টে অশীতিপর বৃদ্ধের আগাম জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:০৮ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে যৌতুকের দাবিতে জখম করার মামলায় লালমনিরহটের এক অশীতিপর বৃদ্ধকে আগাম জামিন দিয়েছেন হইকোর্ট।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি কেএম জাহিদ সারওয়ারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ তাকে আগাম জামিন দেন। আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী ওমর ফারুক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো.মনিরুল ইসলাম।

এজাহার অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ১৯ মার্চ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জের চন্দ্রপুর ইউনিয়নের উত্তর বালাপাড়ার তাজেম উদ্দিনের ছেলে ময়েন উদ্দিনের সঙ্গে বান্দেরকুড়া এলাকার জয়নাল আবেদীনের মেয়ে শারমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে। পরে গর্ভধারণ করেন শারমিন।

গত ১৬ জুন দুই লাখ টাকা দাবি করে শারমিনের শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এতে অপারগতা প্রকাশ করলে শ্বশুর ও ননদের আদেশে তাকে মারধর করেন তার স্বামী। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে শারমিন তার বাপের বাড়ি চলে যান। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১২ জুলাই ফের চিকিৎসা নেয়ার সময় তিনি একটি মৃত সন্তানের জন্ম দেন।

এ ঘটনায় গত ৭ অক্টোবর থানায় স্বামী ময়েন উদ্দিন, শ্বশুর তাজেম উদ্দিন ও ননদ শিরিনা বেগমের বিরুদ্ধে যৌতুকের জন্য মারধর করে জখম এবং সম্মতি ব্যতিরেকে গর্ভপাত ঘটানো ও সহায়তার অভিযোগ এনে এজাহার দায়ের করেন শারমিন।

আইনজীবী ওমর ফারুক জানান, এ মামলায় ময়েন উদ্দিন ও তাজেম উদ্দিনকে হাইকোর্ট আগাম জামিন দিয়েছেন। এজাহারে তাজেম উদ্দিনের বয়স ৬০ বছর দেখানো হলেও জাতীয় পরিচয়পত্র মোতাবেক তার বয়স ৮৭ বছর। তবে তাজেম উদ্দিন মনে করেন তার বয়স শত বছরের উপরে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম জানান, তাদের দুজনকে আট সপ্তাহ করে জামিন দিয়েছেন।

এফএইচ/এমএসএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]