ভার্চুয়ালে ৩৫ ও রেগুলার ১৮টি বেঞ্চ চেয়ে আইনজীবীদের আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৩৫ এএম, ১৭ মে ২০২১
ফাইল ছবি

ঈদুল ফিতরের পর থেকে করোনাভাইরাসের কারণে আরোপিত লকডাউন চলাকালে বিচারকাজ পরিচালনায় হাইকোর্টের ৩৫টি ভার্চুয়াল এবং ১৮টি রেগুলার বেঞ্চ চালুর জন্য আইনজীবীদের পক্ষ থেকে প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন জানিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবীরা।

ঈদের দিনই (১৪ মে) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের কাছে এই আবেদন করা হয় বলে সোমবার (১৭ মে) জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন সাধারণ আইনজীবী ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক ড. মো. মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী।

ওই আবেদনে বলা হয়, বিচারপ্রার্থী জনগণের স্বার্থে এবং আইনজীবীদের স্থবির হয়ে যাওয়া পেশা সচল ও স্বাভাবিক করার জন্য হাইকোর্ট বিভাগে অবিলম্বে ৩৫টি ভার্চুয়াল কোর্ট, ১৮টি রেগুলার কোর্ট, আগাম জামিন শুনানির এখতিয়ার সম্পন্ন ফৌজদারি মোশন বেঞ্চ এবং দেশের সব নিম্ন আদালতে আসামির আত্মসমর্পণের অধিকার ও ইনজাংশন শুনানিসহ অ্যাকচুয়াল কোর্ট স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু করার জন্য সবিনয়ে অনুরোধ করছি।

এর আগে একই দাবিতে গত ২৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে লকডাউনের সময় বিচারকাজ পরিচালনায় হাইকোর্টের ৩৫টি ভার্চুয়াল বেঞ্চ চালু রাখার দাবি জানায় সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবীদের একটি অংশ। সেখানেও নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ড.মো. মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী।

তারও আগে, সরকার ঘোষিত লকডাউন শুরুর পরে গত ৫ এপ্রিল ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের কার্যক্রম সীমিত পরিসরে চলবে বলে পৃথক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

গত ২৭ এপ্রিল সাধারণ আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক মোমতাজউদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে আইনজীবী সৈয়দ মামুন মাহবুব, জুলহাস উদ্দিন আহমাদ, মাসুদ হোসেন, মো. মোজাম্মেল হক প্রমুখ অংশ নেন। মোমতাজউদ্দিন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ও ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

এফএইচ/এসএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]