জাবির ৬ শিক্ষকের নিয়োগ আপাতত স্থগিতের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪০ পিএম, ১৫ জুন ২০২১

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) দর্শন বিভাগে অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে ছয় শিক্ষকের নিয়োগ প্রক্রিয়া আগামী ২০ জুন পর্যন্ত স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই সময়ের মধ্যে এই নিয়োগ সংক্রান্ত নথি আদালতে জমা দিতে বলা হয়েছে।

একই সঙ্গে,অনলাইনে জাবির দর্শন বিভাগে ওই ছয় শিক্ষক নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিটের আদেশের জন্য ২০ জুন দিন ঠিক করেছেন আদালত।

এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিটের শুনানিতে মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিচারপতি এম.ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের দ্বৈত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার অনিক আর হক ও অ্যাডভোকেট সৈয়দা নাসরিন। জাবির পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট কুমার দেবুল দে। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

এর আগে গত ১০ জুন জাবির চার শিক্ষকের পক্ষে রিটটি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ড. সৈয়দা নাসরিন। অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত চেয়ে করা ওই রিটে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, ইউজিসির চেয়ারম্যান, জাবি উপাচার্য, রেজিস্ট্রারসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

রিটে বলা হয়েছে, করোনার সময় যেখানে শিক্ষার্থীরা ক্লাস করার সুযোগ পাচ্ছে না, সেখানে তড়িঘড়ি করে অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষক নিয়োগের হঠকারী সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এর আগে, দর্শন বিভাগে ছয়জন শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পরে গত ১২ জুন অনলাইনে সিলেকশন বোর্ড থেকে মৌখিক পরীক্ষা আহ্বান করা হয়। শিক্ষার্থীশূন্য ক্যাম্পাসে এই শিক্ষক নিয়োগ প্রদানকে ‘দুরভিসন্ধিমূলক’ উল্লেখ করে গত ৯ জুন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) বরাবর চিঠি দিয়েছেন একই বিভাগের আট শিক্ষক। তবে সেই চিঠির পরও যথাযথ পদক্ষেপ না নেয়ায় এই রিট আবেদন করা হয়।

এফএইচ/এসএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]