মিডওয়াইফ পদে শর্তবহির্ভূত নিয়োগ কেন অবৈধ নয় জানতে রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৮ পিএম, ১৫ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৯:১০ এএম, ১৬ জুন ২০২১

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতরের মিডওয়াইফ পদে শর্তবর্হিভূত নিয়োগপ্রাপ্তদের নিয়োগ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে মিডওয়াইফারি অধিদফতরের মিডওয়াইফ পদে শূন্যপদে রিটকারী সংশ্লিষ্টদের নিয়োগ কেন দেয়া হবে না- রুলে সেটাও জানতে চাওয়া হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতর-এর মহাপরিচালক, পিএসসি ও এনটিআরসি-এর চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

আদেশের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন রিটকারীদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া। তিনি বলেন, ‘এরমধ্যে নাসিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতরের মহাপরিচালককে এ সংক্রান্ত জবাব আদালতে উপস্থাপন করার নির্দেশ দেয়া হয়।’

৭৭ জন চাকরিপ্রার্থীর করা রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (১৫ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিটকারীদের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দু কুমার রায় ও বিপুল কুমার বাগমার।

আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া বলেন, ২০১৯ সালের ৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ কর্ম কমিশন (পিএসসি) স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতর ১ হাজার ৮৪৭টি মিডওয়াফ শূন্য পদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। মিডওয়াইফ পদে আবেদনের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- যেকোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে মিডওয়াইফারি।

এ বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি বা কোনো স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান হতে ডিপ্লোমা-ইন-মিডওয়াইফারি সার্টিফিকেট এবং বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিল কর্তৃক নিবন্ধিত। কিন্তু অনেক চাকরিপ্রার্থী ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতার শর্তাদি লঙ্ঘন করে মিডওয়াইফ পদে আবেদন করে ও বিগত ২০ মে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক মিওয়াইফ পদে ১ হাজার ৪০১ জন মিডওয়াইফ নিয়োগ প্রদান করা হয়।

কিন্তু রিটকারীদের সব যোগ্যতা এবং ৪৪৬টি পদ শূন্য থাকলেও তাদেরকে নিয়োগের জন্য বিবেচনা করা হয়নি। তাই ৭৭ চাকরিপ্রার্থী সংক্ষুব্ধ হয়ে আদালতে এ রিট দাখিল করলে আদালত আজ এই রুল জারি করেন।

আইনজীবী মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া আরও বলেন, আদালত বিবাদীদের প্রতি ৪ সপ্তাহের রুল জারি করেন এবং ইতোমধ্যে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতরের মহাপরিচালককে এ সংক্রান্ত জবাব দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। আগামী ৮ জুলাই স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতরের ডিজিকে জবাব দাখিল করতে হবে আদালতে।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতরের মিডওয়াইফ পদে সরাসরি নিয়োগের লক্ষ্যে চলতি বছরের ২০ মার্চ অনুষ্ঠিত লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীর মধ্যে চলতি মাসে এক হাজার ৪১৫ জনকে উত্তীর্ণ দেখানো হয়।

এফএইচ/এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]