সনদ দেখেই আসামির বয়স নির্ধারণ নয়, পুলিশকে হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৩ পিএম, ১৭ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৪:৪৯ পিএম, ১৭ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

আসামিদের বয়স নির্ধারণের ক্ষেত্রে অনলাইনে বা জন্মসনদ বা অন্যা কোনো সনদ দেখে যাচাই-বাছাই (ভেরিফাইড) করে সিদ্ধান্ত নিতে পুলিশের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে হত্যা মামলার আসামির জন্মসনদ যাচাই-বাছাই করে আগামী ১ জুলাইয়ের মধ্যে হাইকোর্টে জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

শুনানির সময় তদন্ত কর্মকর্তারা মামলা নেয়ার পর ইচ্ছেমতো বয়স লিখতে পারেন না বলেও মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আর কোনো আসামির জন্মসনদ ও শিক্ষাসনদ দেখে যাচাই-বাছাই ছাড়া যেন কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা না হয় তাও বলেছেন আদালত।

খুলনার হরিনটানা থানার জয়খালী গ্রামের হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় করা এক মামলায় আসামিদের জামিন শুনানিতে বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম। অন্যদিকে আসামির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান সিরাজ।

ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম জাগো নিউজকে জানান, খুলনার হরিনটানা থানার জয়খালী গ্রামের ডুয়েলের হাসের খামারে ২০১৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর প্রদীপ দে ওরফে পাদুকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় পরের দিন তার ছেলে লিটন কুমার দে মামলা করেন। এই ঘটনায় শাকিব হাওলাদার ও শামীম মোড়লকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই মাসের ৩০ সেপ্টেম্বর দুই আসামি স্বীকারোক্তি দেয়। স্বীকারোক্তি শাকিব জানান, তার বয়স ২০ বছর।

২০২০ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়। চার্জশিটে শাকিব হাওলাদারের বয়স ১৬ বছর উল্লেখ করা হয়। এরপর বিচারিক আদালতে জামিন আবেদন করা হয়। জামিন আবেদন খারিজ হওয়ার পর হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন শাকিব। ওই জামিন আবেদনের শুনানিতে তার বয়সের অসঙ্গতি ধরা পড়ে।

এই ঘটনায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) এসআই রাসেল হোসেনকে তলব করা হয়। ওই তলবে হরিনটানা থানার এসআই সশরীরে উপস্থিত হন। আজ হাজির হয়ে বয়সের বিষয়ে ব্যাখ্যা দেন। তিনি আদালতকে জানান, আসামি শাকিব হাওলাদারের জন্মসনদ অনুযায়ী তার বয়স ১৬ বছর দেখানো হয়। তার জন্ম ২০০৪ সালের ২ মার্চ।

এরপর আদালত জানান, যাচাই-বাছাই ছাড়া জন্মসনদ দিয়ে মামলার এজাহার (এফআইআর), চার্জশিট করা যাবে না।

এফএইচ/ইএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]