হেলেনা জাহাঙ্গীর আ. লীগের কেউ নন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২১

‘হেলেনা জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগের কেউ নন’, বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগরের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আব্দুল্লাহ আবু।

তিনি বলেছেন, ‘হেলেনা জাহাঙ্গীর আদালতে নিজেকে আওয়ামী লীগের লোক বলে দাবি করেছেন। আমরা প্রতিবাদ করেছি। কারণ সে আদালতে মিথ্যাচার করেছে। আদালতে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। কারণ তাকে আগেই দল থেকে বহিষ্কার করেছে।’

শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাত সাড়ে আটটার দিকে মামলার শুনানি শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

আব্দুল্লাহ আবু বলেন, ‘হেলেনা জাহাঙ্গীর ফেসবুকে সরকার ও মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করেছে। তাই তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলায় তদন্তের জন্য তার পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছিল। তার সঙ্গে আর কে কে জড়িত রয়েছে, তা বের করার জন্য। পরে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে হেলেনা জাহাঙ্গীর যে অপপ্রচার করেছে, আদালত তা শুনেছেন।’

এর আগে মামলার শুনানিতে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরী তার কাছে জানতে চান, ‘আপনার কিছু বলার আছে?’

জবাবে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, ‘আমি সরকারের লোক। আমি আওয়ামী লীগের লোক। আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ২৫টি দেশ ভ্রমণ করেছি। আমি কোনো অপরাধ করিনি। তার প্রমাণ নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি বহিষ্কার হইনি। আমি এখনও দলের সঙ্গে আছি।’

এর আগে বিকেলে গুলশান থানায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘র্যাব সদস্যরা হেলেনা জাহাঙ্গীরকে থানায় হস্তান্তর করেছেন। এরপর তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করে র্যাব।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত ১২টার দিকে গুলশানের ৩৬ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাসায় দীর্ঘ প্রায় চার ঘণ্টা অভিযান শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে র্যাব।

এ সময় তার বাসা থেকে বিদেশি মদ, অবৈধ ওয়াকিটকি সেট, চাকু, বৈদেশিক মুদ্রা, ক্যাসিনো সরঞ্জাম ও হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়। আটকের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়।

এছাড়া হেলেনা জাহাঙ্গীরের মালিকানাধীন আইপি টেলিভিশন জয়যাত্রার কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।

এমএমএ/এমএইচআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]