হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ সুস্পষ্ট নয় : আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২১
ছবি : মাহবুব আলম

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে গুলশান থানা পুলিশ যে অভিযোগ করেছে, তা সুস্পষ্ট নয় বলে দাবি করেছেন তার আইনজীবী শফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘মামলার এজাহারে তার বিরুদ্ধে অপরাধের সুস্পষ্ট তথ্য নেই। ঘটনার তারিখ ও স্থান নেই।’

শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাতে আদালতে শুনানি শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘মামলার এজাহারে বলা হয়েছে—হেলেনা জাহাঙ্গীর মানহানি করেছেন। কিন্তু কার মানহানি করেছেন, তা বলা হয়নি। এছাড়া কোনো ব্যক্তিও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেনি। তাই আমরা আদালতে হেলেনা জাহাঙ্গীরের রিমান্ড বাতিলসহ জামিন আবেদন করেছিলাম। আদালত তা গ্রহণ করেনি।’

এর আগে শুক্রবার বিকেলে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব। এরপর হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

পরে সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আদালাতে হাজির করা হয়। এরপর গুলশান থানার মামলায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার পরিদর্শক (অপারেশন) শেখ শাহানুর রহমান।

অপরদিকে, তার আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরী তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড আবেদনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, আসামি হেলেনা জাহাঙ্গীর অনলাইন ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে সরকারের মন্ত্রী, বিভিন্ন সংস্থাকে কটুক্তি করে দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সম্পর্কে মানহানিকর ও মিথ্যা তথ্য প্রকাশ ও প্রচারের মাধ্যমে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানো বা বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি তৈরি করে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত ১২টার দিকে গুলশানের ৩৬ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাসায় দীর্ঘ প্রায় চার ঘণ্টা অভিযান শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে র‌্যাব।

এ সময় তার বাসা থেকে বিদেশি মদ, অবৈধ ওয়াকিটকি সেট, চাকু, বৈদেশিক মুদ্রা, ক্যাসিনো সরঞ্জাম ও হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়। আটকের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়।

এমএমএ/এএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]