অস্ত্র মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৫ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

রাজধানীর বাড্ডা থানায় অস্ত্র আইনে করা মামলায় ব্যবসায়ী মো. মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইয়াসির আলী।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে তিনি সাক্ষ্য দেন। এদিন তার জবানবন্দি শেষ হলেও জেরা না হওয়ায় আদালত পরবর্তী জেরা ও সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৬ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

এ মামলায় এপর্যন্ত ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

এর আগে সোমবার (২৩ আগস্ট) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ মনিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এসময় মনির নিজেকে নির্দোষ দাবি করে আদালতের কাছে ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করেন।

গত ২৬ জানুয়ারি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও অস্ত্র আইনের পৃথক দুই মামলায় গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আব্দুল মালেক অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর গত ৮ মার্চ আদালত মামলার অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন।

এরও আগে গত ২০ নভেম্বর মেরুল বাড্ডার ডিআইটি প্রজেক্টে মনিরের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে র্যাব। ওই সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, কয়েক রাউন্ড গুলি, বিদেশি মদ ও প্রায় দশটি দেশের বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা উদ্ধার করা হয় (যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৯ লাখ টাকা)। তার বাসা থেকে আট কেজি স্বর্ণ ও নগদ এক কোটি নয় লাখ টাকাও উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় গত ২২ নভেম্বর সকালে রাজধানীর বাড্ডা থানায় র্যাব বাদি হয়ে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে তিনটি মামলা করে।

জেএ/ইউএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]