নাটক সম্প্রচার নীতিমালা কেন করা হবে না জানতে চেয়ে রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

নাটক সম্প্রচার নীতিমালা কেন করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। টিভি এবং ইউটিউবসহ সামাজিক মাধ্যমে নাটক, শর্ট ফিল্ম এবং ওয়েব সিরিজ প্রচারে কেন একটি সেন্সর বোর্ড গঠন করা হবে না তা নিয়েও রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান, ‘ঘটনা সত্য’র প্রযোজক এবং পরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার (২৮ নভেম্বর) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

রিট আবেদনের পক্ষে আজ শুনানি করেন আইনজীবী নুসরাত জাহান, মো. তারিকুল ইসলাম তারেক ও মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন মনির। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার। রিট আবেদনকারী আইনজীবী তারিকুল ইসলাম তারেক জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত কোরবানির ঈদের বিশেষ নাটক ‘ঘটনা সত্য’র বিরুদ্ধে বিশেষ শিশুদের বাবা-মায়ের ‘পাপ কর্মের ফল’ বলে বার্তা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। যা একেবারে নৈতিকতা বিরোধী বলে দাবি করা হচ্ছে। এটা নাকের নীতিমালায় পড়ে না দাবি করে করা এক রিটের প্রেক্ষিতে এ রায় দেন আদালত।

এর আগে গত ৪ নভেম্বর পিএফডিএ-ভোকেশনাল ট্রেইনিং সেন্টার ট্রাস্টের চেয়ারম্যান এ রিট করেন।

আদেশের বিষয়ে রোববার (২৮ নভেম্বর) মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন মনির সাংবাদিকদের বলেন, সম্প্রচার নীতিমালা-২০১৪ এর ৬ষ্ঠ অধ্যায় অনুযায়ী একটি সম্প্রচার কমিশন গঠন করার কথা। কিন্তু এ কমিশনটি এখন পর্যন্ত গঠন হয়নি। আপনারা অবগত আছেন কোরবানির ইদের সময় একটি নাটক প্রচারিত হয়েছিলো, ‘ঘটনা সত্য’ নামে । ওই নাটকে একটি সংলাপ এসেছে। এটা মৌলিক মানবাধিকারের লংঘন। এটা ‍খুবই আপত্তিকর (প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে)। এ কারণে জনস্বার্থে এ রিট করা হয়েছে। আমরা চেয়েছি যাতে সম্প্রচার কমিশন করা হয়। আদালত রুল জারি করেছেন।

রুলে টিভি এবং ইউটিউবসহ সামাজিক মাধ্যমে নাটক, শর্ট ফিল্ম এবং ওয়েব সিরিজ প্রচারে কেন একটি সেন্সর বোর্ড/রেগুলেটরি কমিশন/কন্ট্রোলটিং বডি বা অথরিটি বা বোর্ড গঠন করার নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

এফএইচ/কেএসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]