ছাত্রলীগ নেতা সাঈদী-জোবায়েরকে রিমান্ডে চায় পুলিশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১০ পিএম, ২০ মে ২০২২
ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন সাঈদী ওরফে সাহেদী ও মো. জোবায়ের আহাম্মেদ

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সাঈদী ও সাধারণ সম্পাদক মো. জোবায়ের আহাম্মেদকে রিমান্ডে নিতে আবেদন করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২০ মে) তাদের আদালতে হাজির করে সবুজবাগ থানা পুলিশ। এরপর সাঈদীকে মাদক ও অস্ত্র আইনের পৃথক দুই মামলায় পাঁচ দিন করে দশ দিন রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। এছাড়া সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে করা মামলায় জোবায়েরকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেছে পুলিশ। বেলা ৩টার দিকে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহনা আলমগীরের আদালতে এ রিমান্ড শুনানি হবে।

শুক্রবার (২০ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সবুজবাগ থানার পুলিশ পরিদর্শক আমিনুর বাশার।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে মাদক ও অস্ত্র আইনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা করে র‌্যাব। এছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জোবায়ের আহাম্মেদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে অরেকটি মামলা করে র‌্যাব। দুজনের বিরুদ্ধে করা মামলাই তদন্ত করছে সবুজবাগ থানা পুলিশ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নাম ভাঙিয়ে কিছু লোক চাঁদাবাজি করে আসছে- এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার (১৮ মে) দিবাগত রাত ৩টায় রাজধানীর সবুজবাগে অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় ছাত্রলীগ নেতা সাঈদীকে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে জব্দ করা হয় একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলি ও ৫৭৮ পিস ইয়াবা। এরপর সাঈদীকে নিয়ে অভিযানে নামে র‌্যাব।

অভিযান শেষে র‌্যাব সদস্যরা রাস্তায় বের হলে ছাত্রলীগ নেতা জোবায়ের আহাম্মেদের নেতৃত্বে ১৫০-২০০ জন সাঈদীকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় তারা র‌্যাবের ওপর সশস্ত্র হামলা চালান।

জেএ/কেএসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]gmail.com