স্ত্রীকে হত্যা: স্বামীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমে যাবজ্জীবন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫১ পিএম, ২৩ মে ২০২২
ফাইল ছবি

প্রায় ৯ বছর আগে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার মাইজবাড়ী গ্রামে জুলেখা বেগম নামের এক গৃহবধূকে হত্যার দায়ে স্বামী আবদুর রাজ্জাককে বিচারিক আদালতের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশ কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ডেথ রেফারেন্স ও আসামির আপিল শুনানি নিয়ে সোমবার (২৩ মে) হাইকোর্টের বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তী ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।

এদিন আদালতে আসামিপক্ষে শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ফজলুল হক খান ফরিদ ও আইনজীবী মোহাম্মদ আবুল হাসনাত। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল জাহিদ আহমেদ হিরু।

আইনজীবী মোহাম্মদ আবুল হাসনাত জানান, ২০১৩ সালের ১৪ মার্চ ময়মনসিংহের সদর উপজেলার মাইজবাড়ীর নিজ বাড়িতে স্ত্রী জুলেখা বেগমকে হত্যা করে স্বামী আবদুর রাজ্জাক। ওই ঘটনায় নিহতের ভাই আজহারুল ইসলাম বাদী হয়ে আবদুর রাজ্জাকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ১১ (ক)/৩০ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় তদন্ত শেষে দুই আসামিকে অব্যাহতি দিয়ে স্বামী আবদুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

পরে ২০১৫ সালের ২৮ আগস্ট আবদুর রাজ্জাককে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন ময়মনসিংহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল।

এরপর মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে। একইসঙ্গে আসামি আবদুর রাজ্জাক খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল দায়ের করেন।

আদালত আজ শুনানি শেষে বিচারিক আদালতের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আবদুর রাজ্জাককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

এফএইচ/এমকেআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]