ছাত্রলীগ নেতা সাঈদী কারাগারে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:০৬ পিএম, ২৩ মে ২০২২
ছবিতে ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন সাঈদী

রাজধানীর সবুজবাগ থানায় অস্ত্র আইনে করা মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সাঈদীকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৩ মে) দুদিনের রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত আসামিকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা সবুজবাগ থানার উপ-পরিদর্শক রবীন্দ্রনাথ সরকার। এসময় আসামিপক্ষ জামিন আবেদন করে।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিট ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে সাঈদীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ২০ মে আসামি সাঈদীকে মাদক, অস্ত্র আইন এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে পৃথক তিন মামলায় পাঁচদিন করে ১৫ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক রবীন্দ্রনাথ সরকার। শুনানি শেষে আদালত অস্ত্র মামলায় দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে মাদক মামলায় রিমান্ড নামঞ্জুর করেন আদালত। এছাড়া সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগের মামলায় জামিন মঞ্জুর করেন।

ওইদিনই সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে করা মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জোবায়ের আহাম্মেদের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর আদালতের হাজতখানা থেকে জামিনে মুক্তি পান তিনি।

এর আগে গত ১৯ মে দিবাগত রাতে মাদক, অস্ত্র আইন ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা করে র‌্যাব। এছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জোবায়ের আহাম্মেদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে একটি মামলা করে র‌্যাব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নাম ভাঙিয়ে কিছু লোক চাঁদাবাজি করে আসছে- এমন অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৮ মে দিবাগত রাত ৩টায় রাজধানীর সবুজবাগে অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় ছাত্রলীগ নেতা সাঈদীকে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে জব্দ করা হয় একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, দুই রাউন্ড গুলি ও ৫৭৮ পিস ইয়াবা। এরপর তাকে সঙ্গে নিয়েই অভিযানে নামে র‌্যাব। অভিযান শেষে র‌্যাব সদস্যরা রাস্তায় বের হলে ছাত্রলীগ নেতা জোবায়ের আহাম্মেদের নেতৃত্বে ১৫০-২০০ জন সাঈদীকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

জেএ/এমকেআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]