চেক প্রতারণা মামলায় কণ্ঠশিল্পী আবদুল মান্নান রানার কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ১০:০২ পিএম, ২৭ জুন ২০২২
আবদুল মান্নান রানা

আশির দশকের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আবদুল মান্নান রানাকে দুটি পৃথক মামলায় দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৭ জুন) চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতের চতুর্থ যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ আফরোজা জেসমিন কলি পৃথক দুটি রায়ে এ দণ্ডাদেশ দেন।

আবদুল মান্নান রানা নগরীর গোসাইলডাঙ্গা এলাকার আবদুল আজিজের ছেলে।

প্রায় দুই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চেক প্রতারণা মামলায় আবদুল মান্নান রানার বিরুদ্ধে মামলা দুটি দায়ের করেছিলেন তার ভগ্নিপতি আবদুল্লাহ আল হারুন।
তিনি নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন চৈতন্য গলি এলাকার বাসিন্দা।

এদিন আদালতের রায় ঘোষণার সময় আবদুল মান্নান রানা আদালতে হাজির ছিলেন না। পরে আদালত তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী তপন কুমার দাশ জানান, ২০১৪ সালের মে মাসে আবদুল মান্নান রানা ভগ্নিপতির কাছ থেকে দুই দফায় মোট এক কোটি ৮৮ লাখ ৮৯ হাজার ৮২৯ টাকা ঋণ নেন। ওই বছরের ২৮ মে তিনি ঋণের বিপরীতে দুটি চেক দেন। কিন্তু চেকগুলো নির্ধারিত সময়ে অপর্যাপ্ত তহবিলের কারণে ডিজঅনার (প্রত্যাখ্যাত) হয়। ওই বছরের ১১ আগস্ট আবদুল্লাহ আল হারুন বাদী হয়ে রানার বিরুদ্ধে নেগোশিয়েবল ইনস্ট্রুমেন্ট অ্যাক্টের ১৩৮ ধারায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন।

দুই মামলায় শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে সোমবার আদালত এ রায় দেন। মামলা দুটিতে পৃথকভাবে এক বছর করে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই রায়ে চেকে উল্লিখিত সমপরিমাণ টাকা অর্থদণ্ড দেন।

ইকবাল হোসেন/ইএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]