চরভদ্রাসন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সরকারীকরণের নির্দেশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৬ পিএম, ৩০ জুন ২০২২

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার চরভদ্রাসন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় জাতীয়করণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে ৯০ দিনের মধ্যে স্কুলটি জাতীয়করণ করে এ বিষয়ে আদেশ জারি করতে বলেছেন আদালত।

চরভদ্রাসন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় জাতীয়করণ প্রশ্নে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির ও আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব। তাদের সহযোগিতা করেন আইনজীবী মো. মাজেদুল কাদের, ইমরুল কায়েস খান এবং মো. সোয়েব মাহমুদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

আদেশের পর আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব বলেন, চরভদ্রাসন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ফরিদপুর চরভদ্রাসনের সবচেয়ে পুরনো এবং স্বনামধন্য একটি প্রতিষ্ঠান। ১৯৪৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হলেও স্কুলটি জাতীয়করণ করা হয়নি।

২০১৪ সালে স্কুলটি জাতীয়করণের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে স্কুলের সব স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি আইনানুযায়ী সরকারের কাছে হস্তান্তর করে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এরপর অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে অনাপত্তিসহ প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ হলেও শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্কুলটি জাতীয়করণের জন্য চূড়ান্ত পদক্ষেপ নেয়নি।

এরপর বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য ২০১৮ সালে হাইকোর্টে একটি রিট দায়ের করা হয় এবং ওই রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি ৬০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দেন।

উচ্চ আদালতের আদেশের আলোকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২০১৮ সালে একটি চিঠি দিয়ে জাতীয়করণ প্রক্রিয়া আটকে দেয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়ে দেয় যে, একই উপজেলায় একটি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থাকাবস্থায় আরেকটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুযোগ নেই।

পরে ২০১৮ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আরেকটি রিট দায়ের করা হয়। সেই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত রুল জারি করেন। আজ ওই রিটের রায় ঘোষণা দিলেন হাইকোর্ট।

এফএইচ/এমএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]