দিনাজপুর ও সাতক্ষীরার মেয়রের দায়িত্ব পালনে বাধা নেই

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১১ এএম, ০১ জুলাই ২০২২

দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র বিএনপি নেতা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম ও সাতক্ষীরার পৌরসভার মেয়র ও বিএনপি নেতা মো. তাজকীন আহমেদ চিশতিকে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। ফলে তাদের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদালতে এদিন রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল আবেদনের পক্ষে ছিলেন রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। আর দুই মেয়রের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, ইমরুল হায়দার, অ্যাডভোকেট মো. তানভীর আহমেদ। তাদের সহযোগিতায় সঙ্গে ছিলেন মো. আক্তার রসুল মুরাদ, মো. মোসাদ্দেক বিল্লাহ, আব্দুল্লাহিল মারুফ ফাহিম এবং নুরে আলম সিদ্দিকী সোহাগ।

গত ২০ জুন দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র বিএনপি নেতা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ এক বছরের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাকে বরখাস্ত করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ১৫ জুন তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অসদাচরণ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমকে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়রের পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। পরে এ বরখাস্তের আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম।

অন্যদিকে গত ২২ জুন সাতক্ষীরার পৌর মেয়র ও বিএনপি নেতা মো. তাজকীন আহমেদ চিশতিকে মেয়র পদ থেকে বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাকে বরখাস্ত করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. আখতারুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

১৫ জুন তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অসদাচরণ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সাতক্ষীরার পৌরসভার মেয়র মো. তাজকীন আহমেদ চিশতিকে সাতক্ষীরার পৌরসভার মেয়রের পদ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। পরে বরখাস্তের এ আদেশ চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন তাজকীন আহমেদ চিশতি। তখন বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করেন হাইকোর্ট। পরে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।

এফএইচ/এমকেআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।