সুপ্রিম কোর্টে কেক কেটে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

সুপ্রিম কোর্টে কেক কেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উদযাপন করেছে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে আলোচনা সভা শেষে কেক কাটা হয়। এরপর মোনাজাতে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়।

এ সময় বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন করতে পেরে আমরা আনন্দিত। আমরা নেত্রীর শততম জন্মদিন পালন করতে চাই। তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি।

জন্মদিন উদযাপন অনুষ্ঠানে মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব ঢাকা দক্ষিণের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির, সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুন নুর দুলাল, ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার বশির আহিমেদ, সাবেক সম্পাদক মো. মোমতাজ উদ্দীন আহমেদ মেহেদী, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নেতা ও প্রসিকিউটর মো. মোখলেসুর রহমান বাদলসহ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মধুমতি নদী বিধৌত গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন শেখ হাসিনা। স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার জ্যেষ্ঠ সন্তান তিনি।

তবে এবারের জন্মদিনে দেশের বাইরে অবস্থান করছেন প্রধানমন্ত্রী। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে যোগ দিতে তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রে। প্রধানমন্ত্রী তার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পদাঙ্ক অনুসরণ করে গত ২৪ সেপ্টেম্বর অন্যান্য বিশ্বনেতাদের অংশগ্রহণে ইউএনজিএ’র সাধারণ আলোচনায় অন্যান্য বছরের মতো বাংলায় ভাষণ দেন

এফএইচ/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।