কলেজশিক্ষার্থী স্নিগ্ধা হত্যা: ইবিছাত্র শিহাবের ১০ বছরের কারাদণ্ড

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ০২ অক্টোবর ২০২২
ফাইল ছবি

কলেজশিক্ষার্থী স্নিগ্ধা আক্তার রিমি হত্যা মামলায় স্বামী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিহাব উদ্দিন শিশিরকে বিচারিক আদালতের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশে অনুমতি দেননি হাইকোর্ট। তবে তাকে ১০ বছরের দণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে হাইকোর্টে পাঠানো ডেথ রেফারেন্স খারিজ করে রোববার (২ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বশির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে এদিন আসামিপক্ষে ছিলেন রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী বুলবুল রাবেয়া বানু।

২০১৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে শিহাব উদ্দিন শিশিরের হাতে খুন হন কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী স্নিগ্ধা আক্তার রিমি (২০)। এ ঘটনার পরদিন স্নিগ্ধার খালাতো ভাই আবদুল্লাহ আল মামুন মিরপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলার বিচার শেষে ২০১৭ সালের ২০ মার্চ কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক রেজা মহম্মদ আলমগীর হাসান শিশিরকে মৃত্যুদণ্ড দেন। তবে দণ্ডপ্রাপ্ত শিশির পলাতক।

পরে মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে পাঠানো হয়। ডেথ রেফারেন্সের ওপর শুনানি শেষে রায়ের জন্য ২ অক্টোবর দিন নির্ধারণ করা হয়।

স্নিগ্ধা কুষ্টিয়া শহরতলির চৌড়হাস ফুলতলা এলাকার মো. আব্দুল খালেকের মেয়ে। আসামি শিহাব মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের চুনিয়াপাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে।

এফএইচ/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।