আদালতের আদেশে ১৬ মাস পর মায়ের কোলে ফিরলো শিশু মিনহাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৪:৩৮ এএম, ২৪ নভেম্বর ২০২২
মা রুমার কোলে শিশু মিনহাজ/ছবি: সংগৃহীত

দীর্ঘ ১৬ মাস পর আইনি লড়াইয়ে জিতে তিন বছরের ছেলেকে ফিরে পেলেন চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার রুমা আকতার।

মিনহাজুর রহমান নামের ওই শিশুকে রুমার বড় ভাইয়ের স্ত্রী শিরীন আকতার নিজের কাছে রেখেছিলেন। সন্তানকে ফিরে পেতে স্থানীয় পর্যায়ে নানান দেনদরবার করে ব্যর্থ হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হন রুমা।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমেদ ভূঞা শিশু মিনহাজকে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আদেশ দেন।

পরে আদালতেই মায়ের কোলে ফেরে শিশু মিনহাজ। দীর্ঘদিন পর নিজের শিশুসন্তানকে ফিরে পেয়ে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন রুমা আকতার।

রুমা চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানাধীন সরফভাটা এলাকার বাসিন্দা। দেড় বছর আগে স্বামী মো. রফিকের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর আর্থিকভাবে টানাপোড়েনে পড়েন রুমা আকতার। গত বছরের ২৫ জুলাই নিজের দুই বছরের সন্তান মিনহাজকে বড় ভাইয়ের স্ত্রীর শিরীন আকতারের কাছে রেখে শহরে কাজের সন্ধানে যান রুমা। পাঁচদিন পর শহর থেকে ফিরে ভাইয়ের বাসায় আর মিনহাজকে পাননি। তিনি তার ভাবি শিরীনের কাছে মিনহাজ কোথায় জানতে চান।

এসময় রুমাকে বিভ্রান্তিকর তথ্য দেন শিরীন। পরে রুমা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন মিনহাজকে শিরীন তার এক দুঃসম্পর্কের বোন তাসলিমা আকতারের কাছে দিয়েছেন। তাসলিমার শ্বশুরবাড়ি চন্দ্রঘোনার দোভাষী বাজার এলাকায়।

এরপর মিনহাজকে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বললে শিরীন বেশ কয়েকবার সময় নেন। পরে দুইমাসেও ছেলেকে ফিরে না পেয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও চেয়ারম্যানের দ্বারস্থ হন রুমা। স্থানীয়ভাবে চেষ্টা করেও শিশুটিকে ফিরিয়ে আনতে ব্যর্থ হন তিনি। এর মধ্যে রুমাকে হুমকি দিতে থাকেন শিরীন।

গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর রাঙ্গুনিয়া থানায় অভিযোগ করেন রুমার বোন জয়নব আকতার। এরপর পুলিশও শিশু মিনহাজকে ফিরিয়ে আনতে ব্যর্থ হলে রুমাকে আদালতের দ্বারস্থ হতে হয়।

পরে রুমার বোন জয়নব চলতি বছরের ১৫ মার্চ শিশু মিনহাজকে তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। গত ১৭ মে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আবেদনটির শুনানি হয়। শুনানি শেষে রুমার পক্ষের আবেদনটি খারিজ হয়ে যায়।

জেলা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, আবেদনটি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে খারিজ হওয়ার পর আমরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রিভিশন করি। তিনদিন শুনানি শেষে বিচারক শিরীন আকতার ও তসলিমা আক্তারকে শিশু মিনহাজকে নিয়ে আদঅলতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। বুধবার শুনানি শেষে আদালত মিনহাজকে তার মা রুমা আক্তারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার আদেশ দেন।

ইকবাল হোসেন/এএএইচ

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।