কলেজছাত্র মাসুদ হত্যা

দুই যুগ পর ২ আসামির যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

প্রায় দুই যুগ আগে চট্টগ্রাম মহানগরীর চন্দনপুরা এলাকায় কলেজছাত্র মাসুদ চৌধুরী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২৭ নভেম্বর) চট্টগ্রাম চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক শরীফুল আলম ভুঁঞা এ রায় দেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. রফিক ও আজিম উদ্দিন আহমেদ রাজা। রায়ে অনুপ মল্লিক নামের এক আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী ওমর ফুয়াদ রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে বলেন, দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ছাড়াও উভয়কে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ১৬ নভেম্বর নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন চন্দনপুরা দারুল উলুম মাদরাসার সামনে কলেজছাত্র মাসুদ চৌধুরীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় হত্যা মামলা করেন মাসুদের চাচা হারুন চৌধুরী।

মামলার তদন্ত শেষে তিনজনকে আসামি করে ১৯৯৯ সালের ৩০ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। এ ঘটনায় আবদুল হালিম নামের এক প্রত্যক্ষদর্শী আদালয়ে ১৬১ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছিলেন। অভিযোগপত্রে ২৩ জনকে সাক্ষী করা হয়।

২০০১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তিন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। দীর্ঘ বিচারকার্যে ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত।

অতিরিক্ত মহানগর পিপি নোমান চৌধুরী বলেন, কলেজছাত্র মাসুদ চৌধুরী হত্যাকাণ্ডের মামলায় দুজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, উভয়কে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় মো. রফিক আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত অন্য আসামি আজিম উদ্দিন পলাতক। এছাড়া খালাস পাওয়া অনুপ মল্লিক জামিনে ছিলেন।

ইকবাল হোসেন/এমকেআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।