রামগড়ের ইউএনও’র বিচারিক ক্ষমতা কেড়ে নেওয়ার আদেশ বহাল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৩ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২

ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থেকে নিজ কার্যালয়ে বসে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দুজন দিনমজুরের কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা থেকে বিরত রাখতে হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেননি আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ ও নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য আগামী ১২ ডিসেম্বর দিন নির্ধারণ করেছেন আদালত।

আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম আদেশের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, গত রোববার চেম্বার জজ আদালত রামগড়ের ইউএনও’কে নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত না করে আপিল বিভাগে পাঠিয়েছেন।

এর আগে গত ২০ নভেম্বর ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার দিনমজুর আবুল কালাম ও রুহুল আমিনকে দেওয়া সাজা কেন অবৈধ হবে না ও তাদের কেন ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: রামগড়ের ইউএনওর ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা বিরত রাখার নির্দেশ

একই সঙ্গে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দুজন দিনমজুরের কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা থেকে বিরত রাখতে নির্দেশ দেন আদালত। জনপ্রশাসন সচিব ও খাগড়াছড়ির ডিসিকে এই নির্দেশ কার্যকর করতে বলা হয়।

ওইদিন এ সংক্রান্ত রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি জাফর আহমেদ ও বিচারপতি মো. আক্তারুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম এম জি সারোয়ার পায়েল।

ব্যারিস্টার আজিম জাগো নিউজকে বলেন, রুল জারির পাশাপাশি হাইকোর্ট ইউএনও খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার দায়িত্ব থেকে বিরত রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন। রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে পারবেন না তিনি।

সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সারোয়ার পায়েল জাগো নিউজকে বলেন, ইউএনও খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার দায়িত্ব থেকে বিরত রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। রুলও জারি করেছেন আদালত।

আরও পড়ুন: রামগড়ের ইউএনওর ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা কেড়ে নিতে ২ দিনমজুরের রিট

এর আগে গত ২৩ অক্টোবর ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থেকে নিজ কার্যালয়ে বসে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দিনমজুর আবুল কালাম ও রুহুল আমিনকে কারাদণ্ড দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ইউএনও খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতের বিরুদ্ধে। এ অভিযোগে তার ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা কেড়ে নিতে ভুক্তভোগীরা হাইকোর্টে রিট করেন।

রিট আবেদনে ভুক্তভোগীদের ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়। পাশাপাশি এ সংক্রান্ত রুল জারির আরজি জানানো হয়। পরে ২৫ অক্টোবর রিট আবেদনটি শুনানির জন্য কার্যতালিকায় (কজলিস্টে) ওঠে। তারই ধারাবাহিকতায় সেটি শুনানি হয়।

এফএইচ/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।