নয়াপল্টনে সংঘর্ষ

গণগ্রেফতারের প্রতিবাদে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৪ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ ও সরকারি দলীয় কর্মীদের হামলা, গুলি ও গণগ্রেফতারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম কেন্দ্রীয় ও সুপ্রিম কোর্ট বার ইউনিটের নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ মিছিল করেন আইনজীবীরা।

প্রায় পাঁচ শতাধিক আইনজীবী বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শিক্ষাভবন, কদম ফোয়ারা, জাতীয় ঈদগাহ মাঠ হয়ে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গিয়ে বিক্ষোভ মিছিল শেষ হয়।

মিছিল শেষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের সভাপতি আব্দুল জাব্বার ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক গাজী কামরুল ইসলাম সজলের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বক্তব্য দেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল ও আইনজীবী ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মামুন।

বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন- আইনজীবী আবেদ রাজা, জামিল আক্তার এলাহী, মোহাম্মদ আলী, সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, সগীর হোসেন লিয়ন, সুপ্রিম কোর্ট বারের বর্তমান ট্রেজারার মো. কামাল হোসেন, সমিতির সহ-সম্পাদক মো. মাহবুবুর রহমান খান, সাবেক সহ-সম্পাদতক মোরশেদ আল মামুন লিটন, ব্যারিস্টার মনিরুজ্জামান আসাদ, গাজী তৌহিদুল ইসলাম, শামীমা সুলতানা দীপ্তি, সালমা সুলতানা, ব্যারিস্টার ইমাম হোসেন, মো. শহিদুজ্জামান, আব্দুল্লাহ আল মাহবুব, মাহমুদ হাসান, মো. আমিনুল হক মজুমদার, আনিছুর রহমান খান, শহীদুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন খান সম্রাট, শহীদুজ্জামান শহিদ, মোক্তার হোসেন, ব্যারিস্টার সৈয়দ তাজরুল হোসেন, জহিরুল ইসলাম সুমন, আইয়ুব আলী আশরাফী, কে আর খান পাঠান, ফাইয়াজ জিবরান মঈন, মো. মাকসুদ উল্লাহ, মো. কাইয়ুম, জুলফিকার আলম শিমুল, রাসেল আহমেদ, ফয়সাল সিদ্দিকী, মহসিন কবির, নিগার, মিজানুর রহমান টিটু, এ কে এম খলিলুল্লাহ কাসেম প্রমুখ।

মিছিল শেষে সমাবেশে ব্যারিস্টার কায়সার বলেন, বিনা উসকানিতে বিএনপি কার্যালয়ে এ ধরনের হামলা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। শুধু বিরোধীদলকে দমিয়ে রাখার জন্য এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

বক্তারা অবিলম্বে এ ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করে হত্যার জন্য দায়ী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাগ্রহণে আহবান জানাচ্ছি। তিনি বলেন, ১০ ডিসেম্বর বিএনপির গণসমসাবেশ হবে এবং সেই সমাবেশে আইনজীবীরা মিছিল নিয়ে যোগদান করবেন।

১০ ডিসেম্বর ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে বিনা উসকানিতে পুলিশ গুলিবর্ষণ, হামলা এবং পুলিশের গুলিতে পল্লবী থানার ৫নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মকবুল হোসেন হত্যা ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, বিএনপি’র চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, দলের প্রচার সম্পাদ শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ সহস্রাধিক নেতা-কর্মী গ্রেফতার, হয়রানি, আহত করার প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের উদ্যোগে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এফএইচ/এমএএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।