স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে ঢাকা জেলা পরিচালনা করতে চাই

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১২ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

দালাল, বাটপার নির্মূল করে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে ঢাকা জেলা পরিচালনা করতে চান বলে জানিয়েছেন ঢাকা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভূমি অধিগ্রহণের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সেবা নিতে এসে যদি কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী ঘুস চায় তাহলে আমাকে গোপনে হলেও জানাবেন, আমি ব্যবস্থা নেবো। টাউট, দালাল বা যত বড় ক্ষমতাধারী হোক না কেন কেউ অপরাধ করলে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। আমি এ কার্যালয় স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতার মাধ্যমে পরিচালনা করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, ভূমি অধিগ্রহণের চেক হস্তান্তরে শিগগিরই ডিজিটাল করা হচ্ছে। প্রক্রিয়াটা সহজ হয়ে যাবে। ফিল্ড বুক তৈরি করা হবে। তখনই কে কত ক্ষতিপূরণ পাবে সেটা বলে দেওয়া হবে। ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট নম্বর নিয়ে আসা হবে। সরাসরি ব্যাংকে টাকা চলে যাবে। জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে এসে ঘোরাঘুরি করা লাগবে না। কোনো ভোগান্তি পোহাতে হবে না। যেভাবে পেনশন, ভাতা পান সেভাবেই ঘরে বসে ভূমি অধিগ্রহণের চেকের টাকা পাবেন। পরবর্তীতে আমরা নিজেরাই আপনাদের কাছে গিয়ে চেক হস্তান্তর করবো।

jagonews24

পরে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ বাবদ ৬টি এল. এ কেসমূলে ৫৩ জন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাক্তিকে ৩০ কোটি ২৯ লাখ ২ হাজার ৪৫১ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়।

এরমধ্যে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ের ২য় অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণ প্রকল্পে ৩ জনকে ৭ কোটি ১৪ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮ টাকা, জেলা মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্থয় উন্নীতকরণ (ঢাকা জোন) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় মানিকগঞ্জ সড়ক বিভাগীয় গোলড়া- সাটুরিয়া সড়কের ১০ কি. মি এ সড়ক প্রশস্তকরণ ও বাক সরলীকরণ শীর্ষক প্রকল্পে ২ জনকে ১ লাখ ৬০ হাজার ৫০ টাকা, সড়ক ও জনপথ এর আওতাধীন মির্জাপুর-ওয়াশী বালিয়া সড়ক নির্মাণ প্রকল্পে ১ জনকে ৪ লাখ ৩৮ হাজার ৮৪৯ টাকা, ঢাকা ম্যাস র্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (লাইন-৫) নর্দান রুটের ডিপো ও ডিপো এক্সেস করিডোর নির্মাণ প্রকল্পে ৩০ জনকে ২২ কোটি ৭৩ লাখ ৫১ হাজার ২৬৩ টাকা, ঢাকা অ্যালিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে পিপিপি প্রকল্পের তৃতীয় ধাপ (অতিরিক্ত-8) নির্মাণ প্রকল্পে ৭ জনকে ১৪ লাখ ৩৭ হাজার ৬৪০ টাকা। ঢাকা আশুলিয়া অ্যালিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে শীর্ষক প্রকল্পে ১০ জনকে ১০ লাখ ৪৭ হাজার ৬০০টাকা টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়।

জেএ/এমআইএইচএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।