যে ৫ কারণে শিশুকে ঘরের কাজে উৎসাহ দেবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২০ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

শিশুকে ঘরের কাজ করতে দেয়া উচিত কিনা তা সবসময়ই বিতর্ক ছিল। কিছু বাবা-মা বিশ্বাস করেন যে, শিশুদের শৈশব উপভোগ করা উচিত। আবার কেউ কেউ অনুভব করেন যে, শৃঙ্খলা এবং দায়িত্ব মেনে চলতে শেখার এটিই সঠিক বয়স। শিশুকে কি ঘরের কাজ করতে দেয়া উচিত? বিস্তারিত প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘরের কাজে শিশুদের সম্পৃক্ত করা আসলে একটি ভালো ধারণা। তাকে আপনার ঘরের কাজে সাহায্য করতে বলে আপনি ভুল করছেন তা কিন্তু নয়। অবশ্যই আপনি তাদের কঠিন কাজগুলো করাবেন না, তবে গাছে পানি দেয়া বা কাপড় ভাঁজ করার মতো ছোট ছোট কাজ করতে দেয়া মোটেও খারাপকিছু নয়। এর অনেক দীর্ঘ এবং স্বল্প-মেয়াদী সুবিধা রয়েছে। এটি শিশুকে রুটিন মেনে চলতে, আত্মবিশ্বাস তৈরি করতে এবং পরিবারের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে সাহায্য করে।

Sisu-1.jpg

তবে একই সাথে, বাবা-মাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে তারা শিশু। সুতরাং, তারা যে কাজগুলো করবে তা স্বাভাবিকভাবেই নিখুঁত হবে না। এর অর্থ এই নয় যে তাদের কাজ দেয়া বন্ধ করা উচিত, বরং চেষ্টাটির প্রশংসা করুন এবং তাদের আরও ভালো করতে উৎসাহিত করুন।

এটি তাদেরকে দায়বদ্ধতার ধারণা দেবে
শিশুকে বাড়ির কাজকর্মে জড়িত করা এবং ছোট ছোট কাজ করতে দেয়া তাদেরকে দায়বদ্ধ করে তোলে। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতা, যা তাদের বড় হওয়ার পরেও তাদের সহায়তা করবে। বিছানা গোছানো বা পানির বোতলে পানি ভরার মতো ছোট ছোট কাজ তারা সহজেই করতে পারে। এগুলো তাদের দায়িত্ব পালন সম্পর্কে সচেতন করে তোলে।

Sisu-1.jpg

পরিকল্পনার সক্ষমতা বিকাশে সহায়তা করবে
জীবনের যেকোনো পর্যায়েই পরিকল্পনা করা গুরুত্বপূর্ণ এবং যদি আপনার শিশু জীবনের শুরুতেই এই প্রাথমিক দক্ষতাটি শিখে নিতে পারে তবে আরও ভালো। যখন আমরা বড় হয়ে মাল্টিটাস্ক করতে পারি, সেখানে সঠিকভাবে পরিকল্পনা করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। গৃহস্থালী কাজে অংশ নেয়া এই অভ্যাসটি বিকাশে সহায়তা করে এবং তাদের মস্তিষ্ককে কিছুটা শক্ত সময় দেয়। যা এই পেশীগুলো নমনীয় করার একটি দুর্দান্ত উপায়।

এটি তাদের সহানুভূতি শেখাবে
শিশুকে সহানুভূতি শেখানোর জন্য অন্যকে সহায়তা করা একটি দুর্দান্ত উপায়। আপনার শিশুকে পরিবারের অন্য সদস্যদের সহায়তা করতে শেখান। যখন তারা কাজটি সম্পূর্ণ করে, তাদের কাজের প্রশংসা করুন। এমনভাবে কথা বলুন যেন তারা একটি দুর্দান্ত কাজ করেছে! এটি তাদের অন্যান্য কাজের প্রতি আগ্রহী হতে উৎসাহিত করবে এবং সহানুভূতির গুরুত্ব বুঝতে পারবে।

Sisu-1.jpg

এটি তাদের অর্জনের অনুভূতি তৈরি করবে
কাজের শেষে প্রশংসা মিললে শিশুর ভেতরে অর্জনের অনুভূতি তৈরি হবে। প্রতিবার যখন আপনি তাদের ঘরের কোনো কাজ করতে দেবেন, তারা আরও ভালো করার চেষ্টা করবে। কারণ তারা জানে যে তারা যদি ভালো কাজ করে তবে তাদের প্রশংসা করা হবে।

Sisu-1.jpg

এটি তাদের স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করবে
এতে কোনো সন্দেহ নেই যে শিশুরা তাদের মা-বাবার উপর নির্ভর করে। তবে তাদের ছোট ছোট দায়িত্ব দেয়া হলে তা তাদের স্বাবলম্বী করে তুলবে। তাদের বড় হওয়ায় ক্ষেত্রে এই জীবন দক্ষতা ভীষণ দরকারি। কারও উপর নির্ভর করার চেয়ে তারা নিজের কাজ নিজে করার বিষয়ে আস্থাশীল হবে।

এইচএন/এএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]