যদি কোনো রাতে

হাবীবাহ্ নাসরীন
হাবীবাহ্ নাসরীন হাবীবাহ্ নাসরীন , কবি ও সাংবাদিক
প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০১৯

টুপ করে যদি সন্ধ্যা নামে, চুপচাপ আসে ভোর
মহাকালসম বিনিদ্র রাত পাশে থাকি আমি তোর
হঠাৎ বাতাসে অবাধ্য চুল এলোমেলো যদি ওড়ে
এককোণে একা নিভু নিভু হয়ে মোমবাতি যদি পোড়ে
জানালার কাঁচে জোসনা ও মেঘ খেলে যদি লুকোচুরি
পথভোলা কিছু জোনাকির দল যদি করে ওড়াউড়ি
কবিতার খাতা আধখোলা হয়ে আলো-ছায়া গিলে খায়
দূর কোনো গ্রামে বিজলি মেয়েরা ভয়ে ভয়ে চমকায়
তোর দুটি চোখে নামলে আকাশ আরও বেশি গম্ভীর
হঠাৎ উদাস দীর্ঘশ্বাসে আমি হবো চৌচির
বাতাসের কোলে একটি কি দুটি তারা যদি খসে পড়ে
বিরহী হুতুম মাঝরাত্তিরে ডাকলে তারস্বরে
আমি ভয়ে ভয়ে চিবুক লুকাবো তোর ওই তামাটে দেহে
দ্বিধাভরা চোখে ফের সরে যাবো, না পাওয়ার সন্দেহে
চোখে যদি চোখ পড়ে তবুও তো অলিখিত সেই ভাষা
আমিও জানি না, তোরও অজানা, হয়তো বা ভালোবাসা!
হঠাৎ শোনাবে চেনা কোনো সুর রাতজাগা একা পাখি
কামিনির বনে থোকা থোকা ফুল গন্ধ বিলাবে নাকি!

ছুঁয়ে দেবো নাকি তোর ওই আঙুল, তিরতিরে কাঁপা নাক
ভোর হলো প্রায়, আরেকটু ক্ষণ তুই পাশে বসে থাক।

এইচআর/এমএস