Jago News logo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০১৭ | ১৬ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ

সায়েন্স ফিকশন ফেস্টিভালে উৎসবের ছোঁয়া


নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৫:৪৫ পিএম, ০৭ জানুয়ারি ২০১৭, শনিবার | আপডেট: ০৫:৫৪ পিএম, ০৭ জানুয়ারি ২০১৭, শনিবার
সায়েন্স ফিকশন ফেস্টিভালে উৎসবের ছোঁয়া
BiskClub

জাতীয় গ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ সায়েন্স ফিকশন সোসাইটির আয়োজনে শুরু হয়েছে সায়েন্স ফিকশন ফেস্টিভাল ২০১৭। গতকাল (শুক্রবার) শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী এ ফেস্টিভাল শেষ হচ্ছে আজ (শনিবার) সন্ধ্যা ৭টায়।

ফেস্টিভাল উপলক্ষে গণগ্রন্থাগার প্রাঙ্গণ জনপ্রিয় সায়েন্স ফিকশন ক্যারেক্টর টুডি-থ্রিডি ইমেজে সজ্জিত করা হয়েছে। প্রবেশমুখে প্রথমেই অভ্যর্থনা জানাবে ১২ ফুট উচ্চতার টুডি ট্রান্সফরমার ছবির রোবট। এরপর সুপার ম্যান, ব্যাটম্যান, স্পাইডারম্যানসহ নানা রকম ক্যারেক্টর। নানা আয়োজনে এ ফেস্টিভালে ছিল উৎসবের ছোঁয়া। যেখানে শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণীদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো।

এখানকার বুকস্টলগুলোতে পাওয়া যাবে বাংলাদেশের সব সায়েন্স ফিকশন লেখকদের বই। পাশেই রয়েছে বিজ্ঞান আনন্দ পত্রিকার স্টল। ফেস্টিভাল উপলক্ষে ২৫ শতাংশ কম মূল্যে এসব বই পাওয়া যাবে।

festival

ফেস্টিভালে এবারের হিমানয়েড রোবটের নাম ইবো। হাত ও মাথা নাড়াতে এবং কথা বলতে সক্ষম রোবট ইবোর সামনে ছবি তোলার জন্য লম্বা লাইন দেখা যায়। ফেস্টিভালে বিশেষ সংযোজন হলো মাস্টার টাইপার প্রতিযোগিতা। ছোটদের জন্য রয়েছে গাড়ি রেসিং প্রতিযোগিতা।

শনিবার ফেস্টিভালের শেষ দিন রয়েছে এলিয়ন উৎসব। বিকেলে সায়েন্স ফিকশন লেখক ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবালকে সংবর্ধনা দেয়া হবে। এছাড়া সায়েন্স ফিকশন সোসাইটি আয়োজিত ফেস্টিভালে এবারই প্রথম সায়েন্স ফিকশন লেখকদের সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সায়েন্স ফিকশন সোসাইটির সভাপতি মোশতাক আহমেদ জানান, বাংলাদেশ সায়েন্স ফিকশন সোসাইটির মূল উদ্দেশ্য বিজ্ঞান চর্চাকে উৎসাহিত করা, বিজ্ঞান শিক্ষা বিস্তারে সহায়তা করা এবং বিজ্ঞান বিনোদনের প্রসারে কার্যকরী ভূমিকা রাখা।

festival

তিনি বলেন, ‘আজকের কল্পনা আগামীর বিজ্ঞান’ স্লোগান সামনে রেখে প্রতি বছর এ রমক ফেস্টিভাল আয়োজন করা হবে। একই সঙ্গে সৃষ্টিশীল বিজ্ঞান এবং বিনোদন বিজ্ঞানের বিভিন্ন পরিসরে সবাইকে উৎসাহিত করতে আমাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাবো।

এএস/বিএ/আরআইপি

আপনার মন্তব্য লিখুন...