স্বপ্নের স্বাধীনতা, হে পিতা

সাহিত্য ডেস্ক
সাহিত্য ডেস্ক সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৪৩ এএম, ১৫ আগস্ট ২০২২

জাদীদ রওশন

স্বপ্নের আকার-প্রকার ব্যাপ্তি
কত রকম হয় আমার তো জানা নেই।
ঘুমিয়ে যা দেখে তাই কি স্বপ্ন
তিন থেকে সাত সেকেন্ড যার ব্যাপ্তি।

গবেষকরা বলে
স্বপ্ন নাকি প্রেমিক-প্রেমিকার ব্যাকুলতা
নাকি হারিয়ে যাওয়া মানুষের সাথে কথা বলা
নাকি স্বপ্ন একগুচ্ছ চিন্তা
যা তাকে ঘুমাতে দেয় না।

আমি অতি নগন্য সাধারণ
আটপৌরে মানুষ মাত্র
তুমি ছিলে অসামান্য, অসাধারণ, অনন্য
তুমি শতকোটিতে একজন
হে পিতা, তুমি মহান
মহানায়ক একটি নাম
শেখ মুজিবুর রহমান।

স্বপ্ন তোমার এক আকাশ ভেদ করে
নক্ষত্র ছিনিয়ে আনা
তুমি হিমালয় পর্বতকে জয় করে
মানুষের হৃদয়ের গাঁথুনিতে
আলোকোজ্জ্বল এক প্রদীপ শিখা।

তোমার স্বপ্ন বৈশাখের তপ্ত রোদে
কুঁচকে যাওয়া কৃষাণ-কৃষাণীর কপালের ভাঁজ কারখানার শ্রমিকের ঘামের গন্ধ
তোমার বাসনা বিলাস
বানভাসি মানুষের কান্না
তোমার হৃদয়কে কাঁদায় হাজার বার।

তোমার স্বপ্ন মাঠের সোনালী ধানের ক্ষেত
পদ্মা মেঘনা যমুনার বহমান স্রোত
ভাটিয়ালি গান গাওয়া মাঝি মাল্লা
তাঁতের বুনন তোমাকে আকর্ষণ করেছে বারবার
আবাল-বৃদ্ধ -বনিতা সকলেই তোমার আত্মীয়
তোমার ভালোবাসার ছায়া তলে সিক্ত
সাত কোটি পরিবার
হে মহান পিতা।

তোমার ভালোবাসার কবিতার পংক্তিমালা
শোষণের বিরুদ্ধে রাজপথে মুখরিত স্লোগান
বন্দুকের নল, গুলি ছিল তোমার হাতের খেলনা
কারাবাসকে আলিঙ্গন করে সাজিয়েছিলে
তোমার স্বপ্নের বাগান
তোমার রক্তাক্ত হৃদয় ফোটা একটি মানচিত্র
তোমার স্বপ্নের স্বাধীনতা
হে মহান পিতা।

জনম জনম চিত্ত অবনত
চিরন্তন উচ্চারণ আমার
ইতিহাসের দুর্বিনীত একটি নাম
বাঙালীর মহানায়ক
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

জেএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।