ঢাবিতে ছাত্রলীগ পরিচয়ে রিকশাচালককে মারধর

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাবি
প্রকাশিত: ১১:২৬ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৯
ঢাবিতে ছাত্রলীগ পরিচয়ে রিকশাচালককে মারধর

ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে এক রিকশাচালককে মারধর করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক ছাত্র তৌহিদ হাসান অপূর্ব। রক্তাক্ত অবস্থায় ওই রিকশাচালককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের সামনে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত অপূর্ব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। সে মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের কর্মী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘স্লোগান একাত্তর’র ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক।

অপূর্ব জিয়া হল শাখা ছাত্রলীগের শীর্ষ পদপ্রত্যাশী আব্দুল্লাহ সুবাইলের সমর্থক। আব্দুল্লাহ সুবাইল ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আল নাহিয়ান খান জয়ের অনুসারী।

southeast

ঘটনার বিষয়ে একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, অপূর্বের মোটরসাইকেল নীলক্ষেত মোড়ে এক রিকশাচালককে ধাক্কা দেয়ে। এ সময় রিকশাওয়ালাকে মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের ভেতরে নিয়ে এসে মারধর ও গালিগালাজ করে সে।

রিকশাচালক তার গালির জবাব দিলে সে তাকে আরও মারধর করে। এ সময় অপূর্ব বলে, ‘আমাকে চিনস? আমি ছাত্রলীগের নেতা।’ এই কথা বলেই ওই রিকশাচালককে কিল, ঘুষি মারে। এতে রিকশা চালক রক্তাক্ত হয়।

পরে আশপাশে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এসে রিকশাচালককে উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মী অপূর্বের সঙ্গে কথা বলতে গেলে সে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়।

ঘটনার বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত তৌহিদ হাসান অপূর্বকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, ঘটনার বিষয়ে আমাকে এখনো কেউ জানায়নি। প্রক্টরিয়াল টিমের মাধ্যমে খোঁজ নিচ্ছি।

এমআরএম

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

জাগো নিউজে সর্বশেষ

জাগো নিউজে জনপ্রিয়