EN
  1. Home/
  2. দেশজুড়ে

পাসপোর্ট সেবা নিতে এসে ধর্ষণের শিকার তরুণী

জেলা প্রতিনিধি | ময়মনসিংহ | প্রকাশিত: ০৯:১৩ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০২০

ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট সংক্রান্ত সেবা নিতে আসা তরুণীকে (২১) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে মারুফ নামে এক পাসপোর্ট অফিসের কর্মচারীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত মারুফ (৩০) ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারী হিসেবে কর্মরত।

গত শনিবার (২২ আগস্ট) রাতে ময়মনসিংহ নগরীর স্টেশন রোড এলাকার একটি আবাসিক হোটেলে বিয়ের আশ্বাসে তরুণীকে রাতভর ধর্ষণ করে মারুফ। ঘটনার পরদিন রোববার (২৩ আগস্ট) রাতে ওই তরুণী বাদী মারুফকে আসামি করে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর অভিযুক্ত মারুফকে নগরীর চর পাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করে সোমবার (২৪ আগস্ট) আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সোহেল রানা জানান, ওই তরুণীর বেশ কিছুদিন আগে পাসপোর্ট জটিলতায় সেবা নিতে গাজীপুর থেকে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আসেন।

এর সূত্র ধরেই ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারী মারুফের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ই তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

পাসপোর্ট জটিলতার কথা বলে গত (২২ আগস্ট) শনিবার গাজীপুর থেকে ময়মনসিংহে নিয়ে আসে। পরে রাত হলে নগরীর স্টেশন রোড এলাকার একটি হোটেলে বিয়ের আশ্বাসে ইচ্ছার বিরুদ্ধে তরুণীকে ধর্ষণ করে মারুফ। ঘটনার পর বিয়ে করবে না বলে তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

তদন্তকারী কর্মকর্তা আরও বলেন, মামলার পর মারুফকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ভিক্টিম তরুণীকে পরীক্ষা করানোর জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে তিনি পরীক্ষা করাতে অস্বীকৃতি জানান।

তিনি বলেন, ভিক্টিম তরুণী স্বামী পরিত্যক্তা। ২০১৭ সালে গাজীপুরে তার বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু, সংসারে সুখ না থাকায় স্বামী তাকে ডিভোর্স দেন বলেও জানান তিনি।

ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক মাহমুদুল হাসান জানান, ঘটনা শুনার পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এ সম্পর্কে অফিসের কেউ অবগত ছিল না। মারুফ এ অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারী হিসেবে কাজ করতো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানা পুলিশের ওসি ফিরোজ তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত মারুফকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এমএএস/জেআইএম