EN
  1. Home/
  2. দেশজুড়ে

স্ত্রীর পরকীয়ায় প্রাণ গেল স্বামীর

নিজস্ব প্রতিবেদক | রংপুর | প্রকাশিত: ০২:৩৯ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০২০

রংপুরের মিঠাপুকুরের জায়গীরহাট দুর্গাপুরে গুলশান মিয়া (৩০) নামে এক চা দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (১২ অক্টোবর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার জায়গীরহাট বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন বাতাসন দুর্গাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গুলশান মিঠাপুকুরের রানীপুকুর ইউনিয়নের বলদীপুকুর মমিনপুর গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে। স্ত্রীর পরকীয়ার কারণে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করছেন স্থানীয় লোকজন ও নিহতের স্বজনরা। এ ঘটনায় গুলশানের স্ত্রী সেলিনা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, গুলশানের জন্মের পরপরই তার মায়ের সঙ্গে বাবার বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর মায়ের সঙ্গে মামার বাড়ি বাতাসন দুর্গাপুর গ্রামে বসবাস করতেন গুলশান। সোমবার রাত দেড়টার দিকে জায়গীরহাট স্ট্যান্ড থেকে চায়ের দোকান বন্ধ করে বাতাসন দুর্গাপুরে বাসার দিকে যাচ্ছিলেন তিনি।

পথিমধ্যে হেলমেট পরা দুই ব্যক্তি তাকে উপর্যুপরি মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যান। তার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে এক যুবকের সঙ্গে গুলশানের স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে। এতে বাধা দেয়ায় স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিক ক্ষুব্ধ ছিল। তারাই পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি জানান, স্ত্রীর পরকীয়ার জের ধরেই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এর আগে এই পরকীয়ার ঘটনায় গ্রামে সালিশ বৈঠকও হয়েছিল।

মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় নিহত গুলশানের স্ত্রী সেলিনা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

জিতু কবীর/আরএআর/জেআইএম