EN
  1. Home/
  2. শিক্ষা

স্থানান্তর হওয়া শিক্ষার্থীরা পরবর্তী ক্লাসে প্রমোশন পাবেন যেভাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ০৪:১৭ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২০

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘যারা (শিক্ষার্থী) স্থানান্তরিত হয়েছেন তারা অনলাইনে যুক্ত হয়ে অথবা স্ব-স্ব জায়গা থেকে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবেন। এর মাধ্যমে তাকে পরবর্তী ক্লাসে প্রমোশন দেয়া হবে।’

বুধবার (২১ অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনে (ভার্চুয়াল) এ কথা জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক গোলাম ফারুক চৌধুরী, সকল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান।

মন্ত্রী বলেন, ‘এবার করোনা পরিস্থিতির কারণে অনেক অভিভাবক স্থানান্তরিত হয়েছেন। অনেকে ঢাকার বা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী থাকলেও চাকরি হারিয়ে গ্রামে চলে গেছেন। এসব শিক্ষার্থীদের ৩০ কার্যদিবসের পাঠদান এবং অ্যাসাইনমেন্ট প্রক্রিয়া কেমন হবে সেটা নিয়ে চিন্তায় আছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমরা তাদের বিষয়ে ভেবে রেখেছি। এসব শিক্ষার্থীরা সুযোগ থাকলে মূল প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের সঙ্গে অনলাইনে যুক্ত হবেন। আর যদি অনলাইনে যুক্ত হওয়ার সুযোগ না থাকে তাহলে যে গ্রামে বা লোকেশনে অবস্থান করছেন সেখানের স্থানীয় প্রতিষ্ঠানে তার অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবেন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘কেউ যদি তার আগের প্রতিষ্ঠান কিংবা স্থানীয় প্রতিষ্ঠানে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে না পারেন- তাহলে তারা আমাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে তাদের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবেন। কারণ শিক্ষার্থীদের জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে একটি মেইল দেয়া থাকবে। সেখানে সে ওই প্রতিষ্ঠানের নাম উল্লেখ করে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবেন।’

একইসঙ্গে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসটি ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।

এদিকে এবার মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা হবে না জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকার কারণে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে শেষ করা যায় এমন সিলেবাস প্রণয়ন করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। আগামী নভেম্বর থেকে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের পাঠদান কার্যক্রম শুরু হবে নভেম্বর-ডিসেম্বর এই দুমাসের ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস শেষ করা হবে। সেটির ভিত্তিতে মূল্যায়নের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ করা হবে।

এমএইচএম/এফআর/এমকেএইচ