অন্তত ১ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন রাজিব!

বিশেষ সংবাদদাতা প্রকাশিত: ০১:১১ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৯
অন্তত ১ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন রাজিব!

আবারও বিতর্কে জাতীয় দলের সাবেক পেসার শাহাদাত হোসেন রাজিব। বছর দেড়েক আগে বাড়ির শিশুকর্মীকে মারধর করে থানা পর্যন্ত ঘুরে আসতে হয়েছে তাকে। এবার নতুন করে হাত তুললেন সতীর্থ ক্রিকেটারের গায়ে।

জাতীয় লিগের ম্যাচে সতীর্থ ক্রিকেটার আরাফাত সানির (জুনিয়র) গায়ে হাত তুলেছেন রাজিব। শুধু একবার দুবার নয়। চড় থাপ্পরের সঙ্গে নাকি মাঠের মধ্যেই সতীর্থকে লাথিও মারেন রাজিব।

তার এমন কাণ্ডের পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে রিপোর্ট জমা দিয়েছেন ম্যাচের রেফারি আখতার আহমেদ শিপার। সেই রিপোর্ট দেখার পর বিসিবি শাস্তির বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। তবে সেটা কমপক্ষে এক বছর হতে পারে বলেই মনে করছেন ম্যাচ রেফারি।

জাগো নিউজের সাথে আলাপে ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ শিপার বলেন, ‘আমি আমার যা লেখার ও বলার বোর্ডে বলে দিয়েছি। শাহাদাত রাজিব যা ঘটিয়েছে, সেটা নিয়ে আমার মানে ম্যাচ রেফারির শাস্তি দেয়ার এখতিয়ার নেই। এটা লেভেল ৪ ‘এর আওতায়। এ শাস্তি অনেক কঠিন ও বড়। এটা তেড়ে যাওয়া, বাজে অঙ্গভঙ্গি বা গালি দেয়ার মতো ছোটখাটো ঘটনা নয়। সরাসরি গায়ে হাত তোলা। এর শাস্তি কঠিন। আইনে ন্যুনতম ১ বছর সাসপেন্ড। এখন এটা বিসিবিতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সাক্ষ্য প্রমাণ ও যাচাই বাছাইয়ের পর বোর্ডই ঠিক করবে কি শাস্তি দেবে।’

যেহেতু ম্যাচ রেফারি বলেই দিয়েছেন শাস্তি কমপক্ষে এক বছর হওয়ার সম্ভাবনা। তাই এক বছর ধরেই নেয়া যায়। তবে রাজিবের বিষয়ে আগেও অভিযোগ ছিল, সেদিক বিবেচনায় বোর্ড আরও হার্ডলাইনে যেতে পারে।

এআরবি/এমএমআর/পিআর

সর্বশেষ - খেলাধুলা

জাগো নিউজে সর্বশেষ

জাগো নিউজে জনপ্রিয়