1. Home/
  2. খেলাধুলা

‘আন্ডাররেটেড’- বাংলাদেশ টেস্ট দিয়ে শেষ করা এই ব্যাটসম্যান কে?

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশিত: ০৬:২৮ পিএম, ০২ জুন ২০২০

খেলাধুলায় ভাগ্যও একটা বড় ব্যাপার। অনেক সময় যোগ্যতার তুলনায় প্রাপ্য সম্মানটা পাওয়া হয়ে ওঠে না অনেকের। ভারতের শচিন টেন্ডুলকার আর বিনোদ কাম্বলির কথাই ধরুন। কাম্বলিকে মনে করা হতো শচিনের চেয়েও প্রতিভাধর ব্যাটসম্যান। কিন্তু শচিন তার ক্যারিয়ার শেষে কোথায়, আর কাম্বলি কোথায়!

ক্রিকেটে অনেক সময় এমন হয়। হয়তো কোনো একটা ম্যাচে আপনি খুব ভালো খেললেন, ওই ম্যাচেই আরেকজন তার চেয়েও ভালো খেলে সবটুকু আলো নিয়ে নিল। আপনার নামটি নিয়ে আর আলোচনাই হলো না।

প্রাপ্য সম্মান না পাওয়া এমন অনেক ‘আন্ডাররেটেড’ খেলোয়াড় আছেন। ইংল্যান্ডের যেমন গ্রাহাম থর্প। ইংলিশ দলের সাবেক অধিনায়ক নাসের হোসেনের মতে, দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে আন্ডাররেটেড ব্যাটসম্যান ছিলেন এই থর্প।

১৯৯৩ সালে অভিষেক হওয়া গ্রাহাম থর্প ২০০৫ পর্যন্ত কাঁটায় কাঁটায় ১০০ টেস্ট খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেন। ক্যারিয়ার শেষ টেস্টটি ছিল বাংলাদেশের বিপক্ষে। চেস্টার লি স্ট্রিটে ইনিংস জয় পাওয়া ওই টেস্টে এক ইনিংস ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে অপরাজিত ৬৬ রান করেছিলেন থর্প।

সবমিলিয়ে মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যান তার টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ করেন ৬৭৪৪ রান নিয়ে। ১৬টি সেঞ্চুরিসহ রান করেছেন ৪৪.৬৬ গড়ে। ওয়ানডেতেও ৮২ ম্যাচে ৩৭-এর ওপর গড়ে ২৩৮০ রান করেন থর্প।

টেস্টে ইংল্যান্ডের পক্ষে সাবেক এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের চেয়ে বেশি সেঞ্চুরি আছে কেবল ১৫ জনের। এমনকি তার গড়ও অ্যান্ড্রু স্ট্রাউস, ইয়ান বেল এবং ডেভিড গাওয়ারের চেয়ে বেশি।

কিন্তু এত সাফল্যের পরও থর্পকে ইংল্যান্ডের সেরা ব্যাটসম্যানদের কাতারে রাখা হয় না, মনে করেন নাসের। তিনি বলেন, ‘তিনি এমন একজন যাকে নিয়ে যথেষ্ট কথা হয় না। যখন মানুষ ইংল্যান্ডের কিংবদন্তিদের তালিকা করে, সম্ভবত তাদের মনে আসে না নামটি। কিন্তু তিনি ছিলেন বিপদের ত্রাতা, লড়াকু। আমি যাদের সঙ্গে খেলেছি, তিনি তাদের মধ্যে অন্যতম সেরা।’

সাবেক ইংলিশ দলপতি যোগ করেন, ‘মাঝেমধ্যে আমরা অনেকের কথা ভুলে যাই। নব্বইয়ের দশক ইংলিশ ক্রিকেটের জন্য খারাপ একটা সময় হিসেবে বিবেচিত। কিন্তু গ্রাহাম থর্প ছিলেন দুর্দান্ত ক্রিকেটার, যাকে বেশিরভাগ ইংল্যান্ড দলেই রাখতে হবে।’

এমএমআর/এমকেএইচ