EN
  1. Home/
  2. খেলাধুলা

করোনার পর আজ মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ফুটবল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১২:৩৮ পিএম, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনাভাইরাসের ভয় কাটিয়ে খেলাধুলা মাঠে ফিরেছে বেশ আগে। এরই মধ্যে ইউরোপিয়ান লিগগুলো শেষ হয়ে গেছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগও শেষ। তবে এতদিন আন্তর্জাতিক ফুটবল ছিল মাঠের বাইরে। এবার সে অপূর্ণতাও ঘুচে যাচ্ছে। করোনার পর এবার মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ফুটবল।

দর্শকহীন মাঠেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে হবে খেলা। তাতেও তো মাঠে খেলা ফিরছে! আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ইউরোপে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই, উয়েফা নেশনস লিগ। এ লিগ দিয়ে মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ফুটবলও।

প্রথম দিনই জমজমাট লড়াই। মুখোমুখি হচ্ছে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেন এবং জার্মানি। দীর্ঘ সময় জাতীয় দলগুলোর কার্যক্রম বন্ধ। এরই ফাঁকে প্রতিটি দলের কোচরাই নতুন করে দল সাজানোর চেষ্টা করছেন। যে কারণে জার্মানি এবং স্পেন- দুই দলই পুরোপুরি অচেনা দুটি দল মাঠে নামাচ্ছে আজ।

উয়েফা নেশন্স লিগ- ৫৫ দলের জমজমাট টুর্নামেন্ট। দুই বছর পর যেহেতু বিশ্বকাপ, এ কারণে এই টুর্নামেন্টেরও গুরুত্ব বাড়ছে। কারণ, সেরা দুই গ্রুপ জয়ী দল সরাসরি সুযোগ পাবে বিশ্বকাপ প্লে অফে।

করোনার কারণে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ যেমন পিছিয়েছে, তেমনি স্থগিত হয়েছে ইউরো ও কোপা আমেরিকা। ১৫ মার্চ বুরকিনা ফাসো ও টোগোর ম্যাচটার পর বন্ধ হয়ে যায় আন্তর্জাতিক ফুটবল। প্রায় ৬ মাস পর সেই বন্ধ দুয়ারটাই খুলছে আজ।

আজকের হাইভোল্টেজ ম্যাচটি ছাড়াও অনুষ্ঠিত হবে আরও ৯টি ম্যাচ। অর্থ্যাৎ প্রথম দিনেই মাঠে নামছে মোট ২০টি দল। স্পেন-জার্মানি ছাড়া বড় কোনো ম্যাচ আজ আপাতত নেই।

গত বিশ্বকাপের দুই ফাইনালিস্ট ফ্রান্স ও ক্রোয়েশিয়া আরো একবার মুখোমুখি হচ্ছে আগামী মঙ্গলবার। তবে গত বিশ্বকাপে চমক দেখানে রাশিয়া খেলবে আজ, সার্বিয়ার বিপক্ষে। আজ অন্য ম্যাচগুলোতে ফিনল্যান্ডের প্রতিদ্বন্দ্বী ওয়েলস, ইউক্রেন মুখোমুখি সুইজারল্যান্ডের আর স্লোভেনিয়ার প্রতিপক্ষ গ্রিস।

র্যাংকিং বিবেচনায় চারটি আলাদা গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে ৫৫টি দলকে। সেরা ১৬ দল নিয়ে হবে লিগ ‘এ’। এখানে আবার চারটি গ্রুপ। গ্রুপ ১-এ আছে নেদারল্যান্ডস, ইতালি, বসনিয়া অ্যান্ড হার্জেগোভিনা ও পোল্যান্ড। গ্রুপ ২-এ ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, ডেনমার্ক ও আইসল্যান্ড। গ্রুপ ৩-এ পর্তুগাল, ফ্রান্স, সুইডেন ও ক্রোয়েশিয়া। আর গ্রুপ ৪-এ সুইজারল্যান্ড, স্পেন, ইউক্রেন ও জার্মানি।

লিগ ‘বি’ ও লিগ ‘সি’তে থাকছে সমান ১৬টি করে দল। তারাও খেলবে আলাদা চারটি গ্রুপে ভাগ হয়ে। র্যাংকিংয়ে শেষ দিকে থাকা সাত দল নিয়ে তৈরি লিগ ‘ডি’।

শুধু লিগ ‘এ’র চার গ্রুপের চার জয়ী দল সুযোগ পাবে সেমিফাইনাল খেলার। এরপর তাদের নিয়ে হবে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ। এ ছাড়া প্রতি গ্রুপ থেকে অবনমন ও উত্তরণ তো থাকছেই। গতবার প্রথম আসরের ফাইনালে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল পর্তুগাল।

এবারও জার্মানি, ফ্রান্স এবং স্পেনের সঙ্গে অন্যতম ফেভারিট পর্তুগাল ও নেদারল্যান্ডস। উয়েফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য সেরা দুই গ্রুপ জয়ী দলের ফরম্যাট যোগ করায় টুর্নামেন্টের গুরুত্ব বেড়েছে অনেক।

ইউরোপ থেকে বিশ্বকাপে জায়গা পায় ১৩ দল। আগামী বছর শুরু হতে যাওয়া বাছাইপর্বে ১০ গ্রুপের সেরা ১০ দল কাতার যাবে সরাসরি। রানার্সআপ ১০ দলের সঙ্গে প্লে অফে জুড়ে দেওয়া হবে নেশনস লিগের দুটি দলকে। এরপর ১২ দলের মধ্য থেকে সেরা তিনটি টিকিট পাবে কাতারের।

আজ ২০১৪ বিশ্বকাপজয়ী জার্মানির সঙ্গে ২০১০-এর চ্যাম্পিয়ন স্পেনের ম্যাচটা থাকছে সবার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে। একই গ্রুপে থাকায় দুই দলের একটির সুযোগ থাকবে সেমিফাইনালে ওঠার। তবু চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে খেলা বায়ার্ন মিউনিখের ম্যানুয়েল ন্যুয়ার, সার্জি জিনাব্রি, জসুয়া কিমিচ, লিওন গোরেত্জকাদের বিশ্রাম দিচ্ছেন জার্মান কোচ জোয়াকিম লো।

এ কারণে ম্যানসিটি থেকে বায়ার্নে আসা লেরয় সানের ওপর বাড়তি দায়িত্ব। যদিও চোটগ্রস্ত সান নিজেই আত্মবিশ্বাসী নন পুরোপুরি, ‘আমি ৮০ শতাংশ ফিট।’

ওদিকে গত নভেম্বরে লুই এনরিকে দ্বিতীয়বার স্পেনের দায়িত্ব নেওয়ার পর আজই মাঠে নামছেন প্রথমবার। করোনা পজিটিভ হওয়ায় তিনি পাচ্ছেন না ফরোয়ার্ড মিকেল ওয়ারজেবালকে। তবে স্পেনের হয়ে ইতিহাস গড়তে যাচ্ছেন বার্সার তরুণ খেলোয়াড় আনসু ফাতি।

আইএইচএস/জেআইএম