নুরের বিচার দাবিতে প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫০ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০২০

সংবাদমাধ্যম নিয়ে কটূক্তি ও হুমকি দেয়ায় ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের প্রতি অসন্তোষ জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নুরের বক্তব্য দ্রুত প্রত্যাহার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ঢাকায় কর্মরত সংবাদকর্মীরা।

এ সময় সাংবাদিক নেতারা বলেন, রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হচ্ছে গণমাধ্যম, সমাজের দর্পণ। সমাজের সকল চিত্র দেখায় গণমাধ্যম। সমাজকে সঠিক খাতে প্রবাহিত করতে গণমাধ্যমের ভূমিকা রয়েছে। সংবাদর্মীরা নানাভাবে তথ্য সংগ্রহ করে তা দেশের মানুষের জন্য প্রচার করে। অথচ ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার করায় তিনি একটি টেলিভিশনের বিরুদ্ধে কটূক্তি ও হুমকি দিয়েছেন। আমরা তীব্রভাবে এর প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

সংবাদ মাধ্যমকে নিয়ে নুরের দেয়া বক্তব্য অতিদ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে নেতারা বলেন, নুরের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও আইসিটি মামলা হলেও তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না।

এ কারণে তিনি বর্তমানে গণমাধ্যমকে নিয়ে নানা ধরনের খারাপ মন্তব্য করার সাহস পাচ্ছেন। তার এমন মন্তব্য করার পেছনে কোনো মহল কাজ করছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখার দাবি জানানো হয়।

নেতারা বলেন, নূরের এমন আচরণের কারণে সংবাদকর্মীদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। এজন্য তাকে ক্ষমা চাইতে হবে। বিচারের আওতায় আনতে হবে। নতুবা সকল গণমাধ্যম এক হয়ে তার বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করবে।

মানববন্ধনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি আবু জাফর সূর্য, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুক্কুর আলী শুভসহ সংবাদমাধ্যমে কর্মরত বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ৭১ টেলিভিশনের পক্ষ থেকে নুরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ধর্ষণের বিষয়ে টকশোতে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু তিনি অংশ নিতে অস্বীকৃতি জানান।

একাত্তর টিভির যে সাংবাদিক তাকে টকশোতে আমন্ত্রণ জানাতে যোগাযোগ করেছিলেন তার ফোন নম্বর ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়ে নুর গর্হিত অপরাধ করেছেন।

প্রতিক্রিয়াশীল একটি চক্র এখন সেই নম্বরে ক্রমাগত কল করে অশ্লীল বক্তব্য ও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। নুরের এই তৎপরতা স্বাধীন গণমাধ্যমের জন্য হুমকিস্বরূপ।

এমএইচএম/এমআরএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]