তিন মাসে হেফাজতের নির্যাতনের শিকার ১৩ সংবাদকর্মী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩২ এএম, ২১ এপ্রিল ২০২১

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে কেন্দ্র করে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ, হরতাল কর্মসূচিতে গণমাধ্যমকর্মীদের উপর কয়েক দফা হামলা হয়।

এছাড়া এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিবের রিসোর্ট কান্ডের তথ্য সংগ্রহ করতে যাওয়ায় নারায়ণগঞ্জে স্থানীয় এক সাংবাদিকের উপর হামলা করে হেফাজতের নেতাকর্মীরা। সব মিলিয়ে চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে হেফাজতের নেতাকর্মীদের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ১৩ সাংবাদিক।

চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে মার্চ এই তিন মাসে ৬৫ জন গণমাধ্যমকর্মী নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১২ জন সাংবাদিক।

পৌর নিবার্চনে সহিংসতার শিকার হয়েছেন ১৩ জন সাংবাদিক, হেফাজন কর্তৃক লাঞ্ছিত হয়েছেন ১৩ জন সাংবাদিক আর অন্যান্যভাবে সহিংসতার শিকার হয়েছেন ২৭ জন সাংবাদিক।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) মানবাধিকার সংস্থা আইন ও সালিস কেন্দ্রের (আসক) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে এ তথ্য জানানো হয়।

গত রোববার ২৮ মার্চ হেফাজতে ইসলামে ঢাকা হরতালের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড ও সানারপাড় এলাকায় সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হন সাংবাদিকরা।

এ সময় আহত হন বৈশাখী টিভির রিপোর্টার আশিক মাহমুদ, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের রিপোর্টার রায়হান কবীর, গাজী টিভির রিপোর্টার রুবিনা ইয়াসমিন, ক্যামেরাপার্সন মাহমুদুর রহমান এবং আরটিভির একজন রিপোর্টার। গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলসহ বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এর আগে ২০১৩ সালে হেফাজতে ইসলামের এক সমাবেশে একুশে টেলিভিশনের সাংবাদিক নাদিয়া শারমিনসহ ১৫ সাংবাদিককে লাঞ্ছিত হয়।

এসএম/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]