গর্দভের হিরোইজমে জাতির বারোটা বাজে : খোকন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১০ পিএম, ০৫ জুন ২০২১

চীনের কাছ থেকে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধী টিকা নেয়ার চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করে এর দাম একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা গণমাধ্যমের কাছে প্রকাশ করায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক উপ-প্রেস সচিব (ডিপিএস) আশরাফুল আলম খোকন। তিনি বলেছেন, মিডিয়া দেখলে অনেক বুদ্ধিমানও গর্দভ হয়ে যায়, আর এই গর্দভ হিরোইজম করতে গেলে জাতির কিংবা দলের বারোটা বাজে।

শনিবার (৫ জুন) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে খোকন এ কথা বলেন।

পোস্টে তিনি লেখেন, ‘অতিকথন খুব খারাপ বিষয়। কোনটা বলা যাবে, কোনটা বলা যাবে না এই বিষয়টি বুঝতে পারা যোগ্যতার বিষয়। এখানে মেধা, শিক্ষাগত যোগ্যতার বা পদ পদবির চেয়ে “কমন সেন্স” বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

‘মিডিয়া দেখলে অনেক বুদ্ধিমানও গর্দভ হয়ে যায়। কারণ একটাই, মিডিয়াতে হিরো হওয়া বা জাতিকে চেহারা দেখানোর সুযোগ অনেকেই হাতছাড়া করতে চান না। আর এই গর্দভই হিরোইজম করতে গিয়ে জাতির কিংবা দলের বারোটা বাজে।’

খোকন লেখেন, ‘মিডিয়াতে সব কিছু বলতে আপনি বাধ্য না। আর সব কিছু জাতির জানারও দরকার নাই। রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ এমন অনেক কিছুই থাকে যা প্রকাশিত হলে ক্ষতিকর হবে। জাতির ক্ষতি কেউই চাওয়া উচিত না। করোনার যে টিকা চীন শ্রীলংকাকে দিয়েছে ১৫ ডলারে বাংলাদেশকে তা দিয়েছিল ১০ ডলারে। শর্ত ছিল দামের বিষয়টি বাংলাদেশ প্রকাশ করতে পারবে না। এই শর্ত আমরা রক্ষা করতে পারিনি, শুধু বাচালতার কারণে। ’

তিনি বলেন, ‘যখন অনেক উন্নত প্রভাবশালী দেশ টিকা পায়নি, তখন ভারত থেকে সেরামের টিকা পেয়েছিল বাংলাদেশের মানুষ। চীনের সাথে দরদামে জিতে যাওয়াটাও ছিল বাংলাদেশের আরেকটি সফলতা। কিন্তু এই সফলতা ম্লান হয়ে গেলো এই হিরোইজম প্রীতির কারণে। একজন কর্মকর্তা হিরো সাজতে গিয়ে মিডিয়াতে দাম বলে দিলেন। ফলশ্রুতিতে এখন চুক্তি বাতিল করছে চীন। কারণ, তাদের কাছ থেকে টিকা নেয়া অন্যদেশগুলো এখন অতিরিক্ত টাকা ফেরত চাচ্ছে। এখন ওই দেড়কোটি টিকা নিতে চাইলে অতিরিক্ত টাকা গচ্চা দিয়েই বাংলাদেশকে নিতে হবে।’

এসইউজে/এইচএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]